অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন কার্যকর এবং নিরাপদ বিজ্ঞানীদের দাবি - কক্সবাজার কন্ঠ

রোববার, ৯ আগস্ট ২০২০ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২০-০৭-২০ ১৫:২৬:২৬

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন কার্যকর এবং নিরাপদ বিজ্ঞানীদের দাবি

নিউজ ডেস্ক :  অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি করোনার ভ্যাকসিন নিরাপদ এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়ক। বিশ্বে প্রথম মানবদেহে ভ্যাকসিনের সফল প্রয়োগের পর সোমবার এ ফল প্রকাশ করেন তারা। বলা হয়, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি করোনার ভ্যাকসিন মানবদেহে পরীক্ষার প্রথম ধাপ সফল হয়েছে। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এখন পর্যন্ত বিশ্বে কোনও ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়নি।
অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীদের দাবি তাদের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন নিরাপদ এবং রোগ প্রতিরোধে সহায়ক। ১ হাজার ৭৭ জনের ওপর চালানো পরীক্ষামূলক প্রয়োগে দেখা গেছে তাদের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হচ্ছে। একইসঙ্গে শ্বেত কণিকা তৈরিতেও সহায়ক যা করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কার্যকর ভূমিকা রাখে। তবে অক্সফোর্ড জানায়, করোনা প্রতিরোধে এই ভ্যাকসিন শতভাগ কার্যকর তা এখনই বলা যাচ্ছে না, আরও গবেষণা এবং প্রয়োগ করতে হবে।

যেকোনও ভ্যাকসিন তৈরি এবং চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য বছরের পর বছর এমনকি কয়েক দশকও লেগে যায়। তবে অক্সফোর্ডের এই ভ্যাকসিন যদি সফল হয় তাহলে আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যেই মানুষের শরীরে প্রয়োগ শুরু করা যেতে পারে। অক্সফোর্ডের একটি সূত্র ব্রিটিশ দৈনিক দ্য টেলিগ্রাফকে জানিয়েছে, ভ্যাকসিন নেয়া স্বেচ্ছাসেবীদের দেহ থেকে রক্তের নমুনা সংগ্রহের পর পরীক্ষায় দেখা গেছে- এটি দেহে অ্যান্টিবডি তৈরিতে সক্ষম হয়েছে।

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনের আরও পরীক্ষার জন্য যুক্তরাজ্যে ১০ হাজার মানুষের দেহে তা প্রয়োগ করবে অক্সফোর্ড। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে ৩০ হাজার ও ব্রাজিলে ২ হাজার স্বেচ্ছাসেবীকে ভ্যাকসিনটি দেয়া হবে।

এদিকে, করোনাভাইরাসের  সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের ১০ কোটি ডোজের আগাম প্রাপ্তি যুক্তরাজ্য নিশ্চিত করেছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। বলেন, ‘আমি যদি বলতে পারতাম, আমরা ১০০ ভাগ নিশ্চিত যে করোনার ভ্যাকসিন কিছুদিনের মধ্যে পেতে যাচ্ছি তবে ভালো লাগতো। অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীরা নানা রকম গবেষণা, পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছেন। এ বছরই যদি হাতে পেতাম তাহলে খুব ভালো হত। আমরা ইতোমধ্যে ১০ কোটি ডোজ পাবো বলে নিশ্চিত হতে পেরেছি। সূত্র- সময় সংবাদ অনলাইন।

আরো সংবাদ