সেন্টমার্টিনে আটকে পড়া পর্যটকরা ফিরলেন - কক্সবাজার কন্ঠ

সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২০-১০-২৫ ১৩:৪২:৫২

সেন্টমার্টিনে আটকে পড়া পর্যটকরা ফিরলেন

সেন্টমার্টিনে আটকে পড়া পর্যটকরা আজ বিকেলে ফিরবেন

ফাইল ছবি @  নিজস্ব প্রতিবেদক : কক্সবাজারের সেন্টমার্টিনে বেড়াতে এসে আটকে পড়া সাড়ে ৪শ’ পর্যটক চার দিন পর ট্রলার ও জাহাজে করে ফিরে গেছেন। ২৫ অক্টোবর সকালে পাঁচটি সার্ভিস বোটে দেড়শ পর্যটক কক্সবাজারের টেকনাফ ও শাহপরীর দ্বীপ জেটি ঘাটে পৌঁছান। এরপর বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে আরও আড়াইশ পর্যটক পর্যটকবাহী কর্ণফুলী এক্সপ্রেস জাহাজে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। তবে জাহাজটি রাত ১০টার দিকে পৌঁছার কথা।

এর আগে গত বুধবার (২১ অক্টোবর) কক্সবাজারের পর্যটকবাহী জাহাজ ও টেকনাফে নৌযানে ভ্রমণে এসে সাড়ে ৪শ’ পর্যটক দ্বীপে আটকে পড়েছিলেন। অন্যদিকে টেকনাফে আটকে পড়া দেড়শ মানুষ দ্বীপে ফিরে গেছেন।
এ প্রসঙ্গে সেন্টমার্টিন দ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নুর আহমেদ বলেন, ‘রবিবার সকালে পাচঁটি ট্রলারে করে আটকে পড়া দেড়শ পর্যটক টেকনাফে ফিরেছেন। বাকিরা বিকালে কর্ণফুলী এক্সপ্রেস জাহাজে করে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে দ্বীপ ত্যাগ করছেন। এছাড়া টেকনাফে আটকে পড়া দ্বীপের বাসিন্দারও ফিরে গেছেন।’
টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘আবহাওয়া-সংক্রান্ত সতর্কতা সংকেত না থাকায় টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে নৌযান চলাচল করতে দেয়া হয়েছে। এতে দ্বীপে ভ্রমণে এসে আটকা পড়া দেড়শ পর্যটক ট্রলারে করে ফিরে আসেন। দ্বীপে আটকে থাকা বাকি পর্যটকরা কর্ণফুলী এক্সপ্রেস জাহাজে করে কক্সবাজারে রওনা দেন।
পর্যটকবাহী কর্ণফুলী এক্সপ্রেস জাহাজের কক্সবাজারের ব্যবস্থাপক হোসাইন ইসলাম বাহাদুর বলেন, বৈরী আবহাওয়া কেটে যাওয়ায় রবিবার সকালে যাত্রী বহন করে জাহাজ সেন্টমার্টিন গেছে। দ্বীপে আটকে পড়া পর্যটকদের নিয়ে জাহাজটি এখন কক্সবাজারের পথে রয়েছে ।

সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মো. তারেক মাহামুদ বলেন, ‘সকালে ট্রলারে করে দেড়শ পর্যটক টেকনাফে ফিরে গেছেন। বাকিরা বিকালে কর্ণফুলী এক্সপ্রেস জাহাজে করে কক্সবাজারে উদ্দ্যেশে রওনা দিয়েছেন। এই জাহাজটি রাত ১০টার দিকে পৌঁছার কথা রয়েছে।

আরো সংবাদ