আবরার ফেসবুকে যা লিখেছেন - Coxsbazarkontho.com | Newspaper

বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ ১লা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বুধবার

প্রকাশ :  ২০১৯-১০-০৮ ১১:৫৮:৪৫

আবরার ফেসবুকে যা লিখেছেন

নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদ তাঁর ফেসবুক পেজে সর্বশেষ একটি পোস্ট দিয়েছিলেন গত ৫ অক্টোবর বিকেল ৫টা ৩২ মিনিটে। এতে তিনি সম্প্রতি ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের কয়েকটি চুক্তির সমালোচনা করেন।

পোস্টটিতে আবরার ফাহাদ লিখেছেন :

Advertisements



১. ৪৭-এ দেশভাগের পর দেশের পশ্চিমাংশে কোনো সমুদ্রবন্দর ছিল না। তৎকালীন সরকার ৬ মাসের জন্য কলকাতা বন্দর ব্যবহারের জন্য ভারতের কাছে অনুরোধ করল। কিন্তু দাদারা নিজেদের রাস্তা নিজেদের মাপার পরামর্শ দিছিল। বাধ্য হয়ে দুর্ভিক্ষ দমনে উদ্বোধনের আগেই মংলা বন্দর খুলে দেওয়া হয়েছিল। ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে আজ ইন্ডিয়াকে সে মংলা বন্দর ব্যবহারের জন্য হাত পাততে হচ্ছে।

Advertisements



২. কাবেরি নদীর পানি ছাড়াছাড়ি নিয়ে কানাড়ি আর তামিলদের কামড়াকামড়ি কয়েক বছর আগে শিরোনাম হয়েছিল। যে দেশের এক রাজ্যই অন্যকে পানি দিতে চায় না, সেখানে আমরা বিনিময় ছাড়া দিনে দেড় লাখ কিউবিক মিটার পানি দিব।

৩. কয়েক বছর আগে নিজেদের সম্পদ রক্ষার দোহাই দিয়ে উত্তর ভারত কয়লা-পাথর রপ্তানি বন্ধ করেছে, অথচ আমরা তাদের গ্যাস দিব। যেখানে গ্যাসের অভাবে নিজেদের কারখানা বন্ধ করা লাগে, সেখানে নিজের সম্পদ দিয়ে বন্ধুর বাতি জ্বালাব।

আবরার তাঁর এ পোস্টের শেষে লেখেন, হয়তো এ সুখের খুঁজেই কবি লিখেছেন—‘পরের কারণে স্বার্থ দিয়া বলি/এ জীবন মন সকলি দাও/তার মত সুখ কোথাও কি আছে/আপনার কথা ভুলিয়া যাও।’ ফাহাদের এই লেখাটি ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত এটি ২৪ হাজার শেয়ার হয়। এটি শেয়ার করে আবরার হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা এবং খুনিদের দ্রুত বিচার দাবি করার পাশাপাশি অনেকে নিজেদের ফেসবুক পেজেও তীব্র ক্ষোভ ও যন্ত্রণা ব্যক্ত করছেন।



গণজাগরণ মঞ্চের (একাংশ) মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার তাঁর ফেসবুক পেজে আবরারের মরদেহের একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘রুম থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে মেরেই ফেলল। জীবন এ দেশে এত সস্তা? বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদের খুনিদের বিচার চাই। দেশের সকল শিক্ষার্থী ও নাগরিকদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান, এই খুনের বিচারের দাবিতে সোচ্চার হোন।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহসহাভতি (ভিপি) নুরুল হক নুর ফেসবুকে নিহত আবরারের ছবি দিয়ে লিখেছেন, ‘আইনের শাসন না থাকায় ক্ষমতার দম্ভে যাচ্ছেতাই হচ্ছে!!!’

আবরার এর আগে ২৮  সেপ্টেম্বর  ফেসবুুকে লেখেন, ‘একটা সময় ভাবতাম অনেক উচ্চশিক্ষিত একটা মেয়ে বিয়ে করব। তার অনেক গুণ থাকবে। কিন্তু একদিন আমি বুয়েটে চান্স পাইলাম। অতঃপর হলের ডাইনিংয়ে খাইতে গেলাম। এখন আমার একটাই ইচ্ছা—আমার বউ রান্না করতে পারলেই হবে।’

সম্প্রতি চুয়াডাঙ্গার কনে খাদিজা আক্তার তুলি প্রথা ভেঙে কন্যাযাত্রী নিয়ে মেহেরপুরের গাংনী উপজলায় বরের বাড়ি বিয়ে করতে গিয়েছিলেন। সেই খবরের ছবি শেয়ার করে গত ২১ সেপ্টেম্বর আবরার লিখেছিলেন, ‘আমিও ইতিহাস গড়তে চাই।’

১৯ সেপ্টেম্বর লিখেছিলেন, ‘First project in varsity life successfully completed. This “Linear Circuit Analyzer” can solve any linear DC, AC and Transient circuit. It also offers DC sweep, AC sweep and parametric sweep features.’



২৫ আগস্ট ‘রোহিঙ্গারা ফুটবল, বাংলাদেশ খেলার মাঠ আর চীন মূল খেলোয়াড়’ শিরোনামের একটি সংবাদ শেয়ার করে লিখেছিলেন, ‘আর কিছু অতিরিক্ত বুদ্ধিমান ভাবছে রোহিঙ্গারা নিজেরাই যাইতে চায় না। এরা বাস্তবতার কই দিয়া যায় আল্লাই জানে।’

Advertisements



১৬ আগস্ট বিবিসির ‘ভারত-ভাগের নাটকীয় ঘটনাবলী, শেখ মুজিবের বয়ানে’ প্রতিবেদনটি শেয়ার করে লিখেছিলেন, পাকিস্তান ভাঙার প্রকৃত কারণ মনে হয় ৪৬-৪৭ এর এই ঘটনাগুলো। ৪৭-এর পর পাকিস্তান বেইমানি করেছে এদেশের ৭ কোটি মানুষের সাথে আর আগে করেছে পশ্চিম বাংলা আর আসামের ৬ কোটি মুসলমানের সাথে। খুব সহসাই হয়তো বা তা দৃশ্যমান হবে।’

আরো সংবাদ

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার
অক্টোবর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« সেপ্টেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১