করোনা ঝুঁকি মাথায় নিয়ে গর্ভবতীদের ডেলিভারি সেবা দিচ্ছেন সোলতানা - কক্সবাজার কন্ঠ

রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২০-০৪-১১ ১৬:৩০:০৮

করোনা ঝুঁকি মাথায় নিয়ে গর্ভবতীদের ডেলিভারি সেবা দিচ্ছেন সোলতানা

কাইছার হামিদ : কভিড-১৯ প্রভাবে সারা বিশ্ব এখন নিরব নিস্তব্ধ! ক্রমান্বয়ের বেড়ে যাচ্ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। সরকারের নির্দেশে বন্ধ হয়ছে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। জেলাগুলিকে ঘোষণা করেছে লকডাউনে। মরণঘাতি করোনা প্রতিরোধে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের উদ্যোগে সতর্কতা ও সচেতনামূলক, ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন। প্রচারণা স্বরূপ প্রত্যন্তাঞ্চলে করা হয়েছে মাইকিং।

এমন বিপর্যয় মুহুর্তেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গর্ভবতী মায়ের ডেলিভারি করতে প্রত্যেক দিনরাত্রি নিরলস পরিশ্রমে ব্যস্ততম সময় কাটাচ্ছেন  কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী সোলতানা বেগম। তিনি CSBA প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত একজন দক্ষ, কর্মঠ, অভিজ্ঞতা সম্পন্ন। বর্তমানে মাতারবাড়ী পরিবার কল্যাণ সহকারী হিসেবে কর্মরত আছেন। FWA এর কর্মরত সোলতানা বেগম মাতারবাড়ী ইউনিয়নের একমাত্র ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে ভয়াবহ পরিস্থিতিতে গর্ভবতী মায়ের ডেলিভারি নিয়মতান্ত্রিক ও সুচারুভাবে করে যাচ্ছেন।

তাঁর চিন্তামগ্ন কিভাবে সফলতা সরূপ তাঁর সেবা প্রত্যন্তাঞ্চলের পরিবারের গর্ভবতী মায়ের কাছে পৌঁছে দেয়া। পক্ষান্তরে তিনি একটুই ভাবেন না, তাঁর পরিবার পরিজনের কথা! যে যখনই বলেন হ্যালো সোলতানা আপা, চিকিৎসার সরঞ্জামসহ তখনই হাজির তাঁর সময়ের সাথী স্কুটি নিয়ে। পৌঁছামাত্র এই সেই বিবেচনা না করে, জড়িয়ে পড়েন চিকিৎসা সেবাই। ৯ এপ্রিল মাতারবাড়ী ইউনিয়ন পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র(UH & FWC) এ সকাল ৯ঃ৩৫ মিনিটে ১টি ও বিকাল ৪ঃ৪০ মিনিটে ১টি। পৃথকভাবে ২টি ডেলিভারি সম্পন্ন হয়।

অনুসন্ধানে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ২টি ডেলিভারিসহ চলিত মাসে মোট ১১টি ডেলিভারি সফলভাবে সম্পন্ন করেছেন। উক্ত ডেলিভারি গুলিতে মা-বাচ্চা উভয় সুস্থ্য ও সবল আছে বলেও জানান সোলতানা বেগম। তিনি আরো জানান, দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে শারীরিক অসুস্থতা মরণব্যধি ডায়াবেটিক ও শ্বাসকষ্টের রোগি। ডাক্তারের পরামর্শে দৈনিক নিয়মিত সেবনসহ এমনকি মাঝে মাঝে নেবুলাইজারও নিতে হয় এবং প্রতি ৩ মাস অন্তর অন্তর তাঁর শরণাপন্ন হতে হয়। তারপরও মাতারবাড়ীর সকল শ্রেণির পরিবারের গর্ভবতী মা’দের সর্বদা ও সবসময় সেবা দিয়ে আসছি। যেহেতু ধর্ম সাধকেরা মানুষের মাঝে যুগে যুগে প্রচার করেছে সেবাই পরম ধর্ম।

আমার কর্মজীবনে বিভিন্ন সময় অসময়ে সার্বক্ষণিক দিকনির্দেশনা মূলক পরামর্শ দিয়ে থাকেন মাতারবাড়ী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের SACMO এবং মাতারবাড়ীর কৃতিসন্তান  ডাঃ ইয়াকুব আলী। সার্বিক সহযোগিতায় পাশে থাকেন মিডওয়াইফ শীরিনা ও রীপা। তিনি আরো বলেন-, হ্যাঁ প্রসব ব্যথা বা জরুরী যে কোন বিশেষ প্রয়োজনে অবশ্যই আমাদের মাতারবাড়ী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র (UH & FWC) বা সরকারি হাসপাতালে চলে আসতে পারবেন। দয়া করে প্রসব ব্যথার আগত রোগীর সাথে সঙ্গি হিসাবে একজনই আসবেন।

মাতারবাড়ী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র (সরকারী হাসপাতাল) এর উপসহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ ইয়াকুব আলী জানান, এমন মহামারি ভয়ংকর পরিস্থিতিতে জীবন বাজি রেখে গর্ভবতীদের ডেলিভারি কাজ সম্পন্ন করছে। পাশাপাশি আমার দিকনির্দেশনা ও পরামর্শ অবিরত ছিলো এবং থাকবে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে ঘরে থাকা, নিরাপদ ও সুরক্ষিত থাকা, আর মরণঘাতক করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে স্ব স্ব অবস্হান থেকে সহায়ক ভূমিকা পালন করে, মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ করেন তিনি।

আরো সংবাদ