চকরিয়া মহাসড়কে যাত্রী সেজে বাসে উঠে ডাকাতি - কক্সবাজার কন্ঠ

বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১ ৬ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বুধবার

প্রকাশ :  ২০২০-১১-২৭ ০৯:০৩:৪৯

চকরিয়া মহাসড়কে যাত্রী সেজে বাসে উঠে ডাকাতি

চকরিয়া মহাসড়কে যাত্রী সেজে বাসে উঠে ডাকাতি

বিশেষ প্রতিবেদক  : কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালীতে একটি যাত্রীবাহী বাসে ডাকাতির ঘটনা সংগঠিত হয়েছে। ২৭ নভেম্বর দিবাগত রাতে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা একটি বাস ভোরে ডাকাতের কবলে পড়ে। এসব ডাকাতরা বাসের ভেতর এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। ডাকাতদের গুলিতে আহত হয় বাসের ১০ যাত্রী। এসময় ডাকাতরা যাত্রীদের কাছ থেকে সর্বস্ব লুট করে। গুলিবিদ্ধ যাত্রীদের মধ্যে ৬ জনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চকরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বাকি ৪ জনকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
এদিকে গুলিবিদ্ধ ১০ জনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ার তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে বলে জানান কর্তব্যরত চিকিৎসক। বাসে থাকা যাত্রীদের মধ্যে বেশীর ভাগই কক্সবাজারে বেড়াতে যাচ্ছিলো। তার পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি।

যাত্রীরা জানান, সংঘবদ্ধ সশস্ত্র ডাকাতদল অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ওই বাসের যাত্রীদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা, অন্তত ২০টি মোবাইল ও চার নারী যাত্রীর কাছ থেকে স্বর্ণালঙ্কার লুট করে। বাসটিতে সাতজন ডাকাত ছাড়া ৩৭ জন যাত্রী ছিলেন। এসব যাত্রীদের মধ্যে ছিলেন কেউ ব্যবসায়ী, আবার কেউ পর্যটক এবং চাকরিজীবী।

এ ঘটনায় চকরিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লা এলাকার মনু খানের ছেলে বিল্লাল হোসেন জনি। তিনি এ ডাকাতির ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এবং ওই বাসের ভুক্তভোগী যাত্রী।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চকরিয়া থানার এসআই নুরে খোদা সিদ্দিকী জানান, কী পরিমাণ টাকা, মোবাইল, অলংকার খোয়া গেছে তা বিস্তারিত তদন্তের পর জানা যাবে।

চকরিয়া থানার ওসি তদন্ত আশরাফ হোসেন জানান, ঘটনার বিস্তারিত জানার জন্য বাস সংশ্লিষ্ট তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জব্দ করা হয়েছে ডাকাতির শিকার যাত্রীবাহী সৌদিয়া পরিবহনের বাসটি।

আরো সংবাদ