চাঁদাবিজি মামলায় ১২ রামদাসহ যুবলীগ নেতা আটক - Coxsbazarkontho.com

বুধবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২০ ১৫ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২০-০১-১৫ ১০:০৯:০৯

চাঁদাবিজি মামলায় ১২ রামদাসহ যুবলীগ নেতা আটক

নিউজ ডেস্ক:  চাঁদাবাজি মামলায় ঝালকাঠিতে দেশীয় অস্ত্রসহ যুবলীগ নেতা সৈয়দ হাদিসুর রহমান মিলন ও তার পাঁচ সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে শহরের ডাক্তারপট্টি এলাকার বাসা থেকে জেলা যুবলীগ নেতা সৈয়দ হাদিসুর রহমান মিলন ও বিভিন্ন স্থান থেকে অন্যদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাদের কাছে আরো অস্ত্র রয়েছে, সেগুলো উদ্ধারের জন্য অভিযান চালানো হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গত ৫ জানুয়ারি সদর উপজেলার বিকনা গ্রামের বাসিন্দা ঠিকাদার কালাম হোসেন বাদী হয়ে সৈয়দ হাদিসুর রহমান মিলনসহ সাতজনের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন।

Advertisements

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো যুবলীগ নেতা সৈয়দ হাদিসুর রহমান মিলন, ঝালকাঠি সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তরিকুল ইসলাম অপু, যুবলীগকর্মী সাইফুল ইসলাম, মামুন খান, মামুনুর রশীদ ও পলাশ দাস।

পুলিশ জানায়, কালাম হোসেনের ঠিকাদারি কাজে বিভিন্ন সময় বাধা দিয়ে আসছিল যুবলীগ নেতা হাদিসুর রহমান মিলন। কাজ করতে হলে তাকে প্রতিমাসে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দিতে হবে বলেও হুমকি দেয় মিলন। টাকা না দেয়ায়  ৫ জানুয়ারি মিলন ও তার লোকজন এলজিইডি ভবনের সামনে ঠিকাদার কামাল হোসেনের ওপর হামলা চালিয়ে নগদ ৫০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ ছাড়াও সৈয়দ মিলনের বিরুদ্ধে টেন্ডারবাজি ও সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মারধর, সন্ত্রাসী বাহিনীর পৃষ্ঠপোষকতা, জমি দখলসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

Advertisements

ঝালকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খলিলুর রহমান জানান, মিলনের বাসা থেকে ১২টি বগি দা ও রামদা উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে আরো একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। তাদের কাছে আরো অস্ত্র রয়েছে, তাই এসব অস্ত্র উদ্ধারে অভিযান চালানো হবে। আসামিদের জিজ্ঞাবাদের জন্য আদালতে রিমান্ড আবেদন করা হবে বলেও জানান তিনি।

আরো সংবাদ