জেলা যুবলীগের জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা - কক্সবাজার কন্ঠ

বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বুধবার

প্রকাশ :  ২০২০-০৮-৩০ ০৬:২৭:৪৭

জেলা যুবলীগের জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা

পঁচাত্তর ও ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা একই সূত্রে গাঁথা, জড়িত একই পরিবার

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাৎবার্ষিকী ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, কক্সবাজার জেলা শাখার উদ্যোগে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকেলে শহরের লালদিঘীর পাড়স্থ জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তাফা বলেন, ৭৫-এর কালো রাতে জাতির পিতাকে স্ব-পরিবারে হত্যার মধ্যদিয়ে স্বপ্নের সোনার বাংলাকে সাম্প্রদায়িক দুঃশাসনের পাকিস্তানে পরিনত করার অপপ্রায়াস চালিয়েছিল খুনি জিয়াউর রহমান। এরই ধারাবাহিকতায় অবৈধ স্বৈরশাসকরা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের নানাভাবে পুরস্কৃত করে রাষ্ট্রের স্বার্বভৌমত্ব বিপন্ন করেছে। জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশ ও জাতিকে সেই নারকীয় পরিবেশ থেকে উন্নত জীবন-যাত্রা পরিবেশে ফিরিয়ে এনেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধারাবাহিক সু-শাসনের মধ্যদিয়ে এ দেশের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এবং গণ-মানুষের অধিকার সু-নিশ্চিত করে উন্নয়নের সর্বোচ্চ শিখরে উপনিত করেছেন। ফলে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বহু-দেশের রোল মডেল।

জেলা যুবলীগ সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক সোহেলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক বলেন- ১৯৭৫ সালের মূল উদ্দেশ্য পুরণে ব্যর্থ হয়ে স্বাধীনতা বিরোধী সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা চালিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে উদ্যত হয়েছিল। সেবারও তারা ব্যর্থ হয়। তাই আগামীতে চোখ কান খোলা রেখে যুবলীগ নেতাকর্মীদের রাজপথে সজাগ থাকার আহবান জানান তিনি।

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সদর-রামু আসনের সংরক্ষিত সাংসদ কানিজ ফাতেমা আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের চলমান উন্নয়নকে ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে যুবলীগ নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- যুবলীগ নেতা বাবুল ইসলাম বাহাদুর, হুমায়ুন কবির হিমু, এড. জিয়া উদ্দিন, রামু উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম, সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন পুতু, উখিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মুজিবুল হক আজাদ।
এতে যুবলীগ নেতৃবৃন্দদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা যুবলীগ নেতা আশরাফ উদ্দিন আহমেদ, পলক বড়–য়া আপ্পু, তাজউদ্দিন সিকদার তাজমহল, ফরিদুল আলম, রামু উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া, কক্সবাজার পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ডালিম বড়ুয়া, উখিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমাম হোসেন, মহেশখালী উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সাজেদুল করিম, কুতুবদিয়া উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আবু জাফর ছিদ্দিক, কুতুব উদ্দিন, মো: ইসমাইল সিআইপি, ইমরুল কায়েস, মো: মমতাজ, এড. নুরুল ইসলাম সায়েম, আনোয়ার করিম, এড. ইমরুল কায়েস, মো: সিরাজদৌল্লাহ, ইউছুপ নবাব শাহ, আমির হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম, ইব্রাহিম, শওকত আলী মানিক, রূপন চৌধুরী, স্বপন দাশ, মুমিনুল হক, শফিউল্লাহ শফি, ইসমাইল সাজ্জাদ, আহসান সুমন, ইয়াছিন আরাফাত রিগ্যান, মুহাম্মদ ফারুক, জুনায়েদ কবির জুয়েল, রেজাউল করিম নয়ন, মো: আনছার, জাহাঙ্গীর আলম, এড. শামসুল আলম, মোনাফ সিকদার, নাছিরুল ইসলাম সিকদার, রউফ নেওয়াজ ভুট্টো, জমির হোসেন, মুবিন, কাজী দিদারুল আলম, আবুল কাসেম, মিজান উদ্দিন সিকদার, মিজানুর রহমান হিমেল, সাজ্জাদ পারভেজ নয়ন, আতা উল্লাহ আতিক, মো: হানিফ, কাইয়ুম হুদা বাদশা, মো: আরিফ, এহছানুল হক, আরিফ উল্লাহ খান, মোস্তাক, জসিম উদ্দিন আকাশ, আব্দুস সালাম ভেট্টো, আলমগীর মুন্না, গাজী শাহজাহান, কফিল উদ্দিন, এনামুল কবির, এড. শাকু, এহছানুল হক মিলন, সানি, হারুনুর রশিদ, মাহাবুবুল আলম আজাদ, পারভেজ মোশারফ, শাকিল প্রমুখ-সহ অসংখ্য নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভার পূর্বে ১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্টে বর্বরোচিত হামলায় সকল শহীদদের মাগফেরাত কামনা করে খতমে কোরআন, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল, এতিমদের মাঝে খাবার পরিবেশন ও বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও যুবলীগ প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মনির প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পন-সহ অন্যান্য কর্মসূচী পালিত হয়।

আরো সংবাদ