তমব্রু সীমান্তের কাছাকাছি গোলাগুলি, বিজিবির প্রতিবাদ - কক্সবাজার কন্ঠ

মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০ ৩০ আষাঢ়, ১৪২৭

প্রকাশ :  ২০২০-০৬-০৫ ১৪:৩৬:২৬

তমব্রু সীমান্তের কাছাকাছি গোলাগুলি, বিজিবির প্রতিবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক :  বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমের তমব্রু সীমান্তের শুন্য রেখার কাছাকাছি মিয়ানমার অভ্যন্তরে সংঘটিত গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপির কাছে প্রতিবাদ লিপি পাঠিয়েছে বিজিবি। এ ঘটনায় ঘমুধুমের তমব্রু শুন্য রেখার কোনার পাড়া সীমান্তে বসবাসকারি ক্যাম্পের রোহিঙ্গাদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। বিজিবি জানিয়েছে, মিয়ানমারের অভ্যন্তরে সক্রিয় দেশটির সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে গিয়ে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।

৫ জুন শুক্রবার বিকালে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের তমব্রু সীমান্তের শুন্যরেখার কাছাকাছি সংঘটিত এ গোলাগুলির ঘটনায় প্রতিবাদ লিপি পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজিবির কক্সবাজার ৩৪ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার বিকাল ৪ টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমের তমব্রু সীমান্তে মিয়ানমার অভ্যন্তরে থেমে থেমে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।

এ নিয়ে শুক্রবার বিকালে বিজিপির কাছে বিজিবি প্রতিবাদ লিপি পাঠিয়েছে বলে জানান বিজিবির এ ব্যাটালিয়ান অধিনায়ক।

এদিকে সীমান্তের শুন্যরেখার কাছাকাছি সংঘটিত গোলাগুলির আতংক বিরাজ করছে ঘুমধুমের কোনারপাড়া সীমান্তে বসবাসকারি ক্যাম্পের রোহিঙ্গাদের মাঝে।

এ নিয়ে ক্যাম্পটিতে বসবাসকারি রোহিঙ্গা কমিউনিটির নেতা আরিফুল ইসলাম বলেন, সীমান্তের শুন্যরেখার ওপারে মিয়ানমার অভ্যন্তরে গোলাগুলির ঘটনায় রোহিঙ্গারা আতংকিত। গোলাগুলির এ ঘটনা কোনারপাড়া ক্যাম্পের নিকটবর্তী হওয়ায় এ নিয়ে রোহিঙ্গাদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।

রোহিঙ্গা কমিউনিটির এ নেতা বলেন, সম্প্রতি মিয়ানমার অভ্যন্তরে সক্রিয় বিদ্রোহী বাহিনীর সদস্যরা দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপিসহ সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে হামলা সংঘটন করছে। এসব বিদ্রোহী বাহিনীর সদস্যরা সীমান্ত এলাকার কাছাকাছিও সক্রিয় রয়েছে।

এ নিয়ে সীমান্তের কাছাকাছি এলাকায় গাছের পাতা পড়লেও মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যরা আতংক ছড়াতে গোলাগুলি শুরু করে বলে মন্তব্য করেন আরিফুল ইসলাম।

আরো সংবাদ