দেশে সাধারণ ছুটি ৩০ মে পর্যন্ত বাড়ছে - কক্সবাজার কন্ঠ

মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০ ৩০ আষাঢ়, ১৪২৭

সোমবার

প্রকাশ :  ২০২০-০৫-১৩ ১৭:২৯:২৯

দেশে সাধারণ ছুটি ৩০ মে পর্যন্ত বাড়ছে

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে চলমান সাধারণ ছুটির মেয়াদ ৩০ মে পর্যন্ত বাড়ছে। সরকারের সর্বশেষ ঘোষণা অনুযায়ী, ১৬ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি রয়েছে। কিন্তু দেশে করোনার সংক্রমণ ক্রমশ বাড়তে থাকায় ছুটির মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। পাশাপাশি ঈদের আগে চারদিন ও ঈদের পর দুই দিনসহ মোট সাতদিন জরুরি সেবা ছাড়া যে কোন যানবাহন চলাচলেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ হচ্ছে।

নিউজ ডেস্ক :  করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে ৩০ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বাড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। তিনি ১৩ মে বুধবার সাংবাদিকদের জানান, সাধারণ ছুটির মেয়াদ ৩০ মে পর্যন্ত বাড়ানো হচ্ছে। ঈদের ছুটিও এই ছুটির মধ্যে যুক্ত হয়ে যাচ্ছে।

তবে যে যেখানে এখন রয়েছেন, ঈদ সেখানে করতে হবে বলে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এজন্য ঈদের আগে-পরে সাত দিন যান চলাচল কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে। খুব শীঘ্রই ছুটি বৃদ্ধির বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হচ্ছে।’

চলমান সাধারণ ছুটি ১৬ মে শেষ হবে। এরপর ১৭ মে থেকে ২০ মে পর্যন্ত চারদিন সরকারি কর্মদিবস। ২১ মে শবে কদরের বন্ধ। পরের দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটি। এরপরেই ঈদের ছুটি ২৬ মে পর্যন্ত। ঈদের ছুটির পর ২৭ ও ২৮ মে দু’দিন কর্মদিবস। পরপরই ২৯ ও ৩০ মে সাপ্তাহিক ছুটি। এ হিসেব কষেই ৩০ মে পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা হচ্ছে বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

দেশে করোনা প্রাদুর্ভাবের প্রেক্ষাপটে সরকার প্রথম দফায় ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সব অফিস আদালত বন্ধ ঘোষণা করে। পাশাপাশি সারাদেশে সব ধরনের যানবাহন চলাচলেও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়। সবাইকে যার যার বাড়িতে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। করোনা প্রতিরোধে এর আগে গত ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল, পরবর্তীতে ৫ থেকে ৯ এপ্রিল, পরে ১৪ এপ্রিল ও ২৫ এপ্রিল, এরপর ৫ মে পর্যন্ত এবং সর্বশেষ আগামী ১৬ মে পর্যন্ত ছুটি বাড়িয়ে আদেশ জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ২৬ মার্চ থেকেই দেশব্যাপী গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে।

যদিও সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে গত ১৮ মার্চ থেকেই। করোনা সংক্রান্ত ছুটি ও পরিস্থিতির কারণে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশের কার্যক্রম ঝুলে গেছে। আটকে গেছে এইচএসসি ও সমপর্যায়ের পরীক্ষাও। ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু করার কথা ছিল। সূত্র সংবাদ

আরো সংবাদ