পশ্চিম বাহারছড়ায় বিয়ে করার উদ্দেশ্য ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী অপহরণ ! - Coxsbazarkontho.com

শনিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২০ ১১ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০১৯-১০-১১ ১৯:৩৯:৪০

পশ্চিম বাহারছড়ায় বিয়ে করার উদ্দেশ্য ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী অপহরণ !

নিজস্ব প্রতিবেদক: কক্সবাজার শহরের পশ্চিম বাহারছড়া বালিকা মাদরাসা সংলগ্ন এলাকায় জোর করে বিবাহ করার উদ্দেশ্য ৫ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। ২ অক্টোবর স্কুলে যাওয়ার পথে এ অপহরণের ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় স্থানীয় কিছু বখাটে যুবককে দায়ী করছেন ভুক্তভোগি পরিবার। গত ৩ অক্টোবর দুপুরে ঘটনার বিবরণ উল্লেখ করে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একখানা এজাহার দায়ের করেছেন ছাত্রীটির বড় ভাই মো. রিয়াজ। থানার এসআই প্রদীপ বিষয়টি দেখভাল করছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।
জানাগেছে, কক্সবাজার শহরের পশ্চিম বাহারছড়ার বাসিন্দা জাফর আলমের মেয়ে ও কস্তুরাঘাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীতে পড়ুয়া ইয়াসিন আকতারকে জোর করে বিয়ে করার উদ্দেশ্য অপহরণ করেছে একই এলাকার মৃত ইদ্রীস আলীর ছেলে বেলাল হোসেন।
এজাহার দায়েরকারী ও ইয়াসমিনের বড় ভাই মো. রিয়াজ বলেন, এ পর্যন্ত থানা থেকে কোনো সহযোগিতা পাইনি। শুনছি আমার ছোটবোন বর্তমানে শহরতলীর ফদনার ডেইল এলাকায় রয়েছে। পুলিশ চাইলে আমার বোনটিকে উদ্ধার করতে পারে। তবে পুলিশ কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন বলে জানায়।

সূত্র জানিয়েছেন, স্থানীয় সমাজ কমিটির নামধারী কিছু বখাটে টাকার বিনিময়ে বেলালের পক্ষ হয়ে ৫ম শ্রেণীতে পড়ুয়া ইয়ামিনকে জোর করে বিবাহ দিতে পাঁয়তারা চালিয়ে আসছেন। এ নিয়ে তারা দফায় দফায় বৈঠকও করেছেন। এতে ইয়াসমিনের পরিবার রাজি না হওয়ায় তাদের ওই বখাটেরা প্রতিনিয়ত হুমকি ধুমকি দিয়ে আসছেন।

ইয়াসমিনের বড়ভাই মোহাম্মদ বিরাজ, আব্দুল মোনাফ ও মা নুর বেগম জানান, বিষয়টি আমরা থানায় অবগত করেছি। কিন্তু থানা এখনো কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। এব্যাপারে তারা পুলিশ প্রশাসনের কাছে জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এনিয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানার অপারেশন অফিসার মোহাম্মদ ইয়াসিন বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। যত দ্রুত সম্ভব মেয়েটি উদ্ধার করে অপরাধীদের বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Advertisements

আরো সংবাদ