'পা দিয়েই স্বপ্ন দেখছে সঞ্জু' - কক্সবাজার কন্ঠ । কক্সবাজারের মুখপত্র

শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০ ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শুক্রবার

প্রকাশ :  ২০১৯-১১-০৫ ২২:০২:৩৮

‘পা দিয়েই স্বপ্ন দেখছে সঞ্জু’

জন্ম থেকেই দুই হাত না থাকায় ‘পা দিয়ে লিখে’ জেএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে সঞ্জু দাস। পা দিয়েই স্বপ্ন জয় করার নিরন্তর চেষ্টা তার। গত শনিবার থেকে শুরু হওয়া জেএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে সঞ্জু। বেঞ্চের ওপর তার পরীক্ষার খাতা রাখা হচ্ছে। সেই খাতায় সে ডান পায়ের দুই আঙুলে রাখা কলম দিয়ে লিখছে। মঙ্গলবার এমন দৃশ্য দেখা যায় আড়াইহাজার উপজেলার কে. এম. সাদেকুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে। সঞ্জু নরসিংদীর মাধবদী থানার আমদিয়া ইউনিয়নের কান্দাইল গ্রামের চিত্র দাসের ছেলে।
Advertisements

সঞ্জুর জন্ম থেকে দুই হাত নেই, ঘাড়ও খানিকটা বাঁকা। সে মাথা সোজা করে দাঁড়াতেও পারে না। এরপরও লেখাপড়ার প্রতি প্রবল আগ্রহ সঞ্জুর। সঞ্জুর পায়ের আঙুলের মধ্যে চক ও পেনসিল দিয়ে একটু একটু করে লেখার অভ্যাস করা হয়। মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই পা দিয়ে লেখা আয়ত্ত করে সে। বাবা-মায়ের আগ্রহ আর শিক্ষকদের আন্তরিকতায় সঞ্জু সব বাধা ঝেড়ে ফেলেছে। তাই তো দুর্বার বাসনায়, অসম্ভবকে সম্ভব করার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে সংগ্রাম করে এগিয়ে চলছে সঞ্জু। ২০১৬ সালে জাবেদা ভূঁইয়া আদর্শ বিদ্যানিকেতন থেকে সে জিপিএ ৪ দশমিক ৫ পেয়ে পিইসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। পরে ভর্তি হয় বনাইদ বাবু মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে। সঞ্জুর বাবা চিত্র দাস বলেন, তার দুই ছেলে এক মেয়ের মধ্যে সঞ্জু মেজ। জন্ম থেকেই সে শারীরিক প্রতিবন্ধী। সঞ্জু জানায়, ভালো ফলের আশা তার। লেখাপড়া শিখে স্বনির্ভর জীবনযাপন ও বড় অফিসার হতে চায় সে। সঞ্জু লেখাপড়া শিখে নিজের পায়ে দাঁড়াতে চায়, মানুষের মতো মানুষ হতে চায়। বড় হয়ে সে মানুষের কল্যাণে কাজ করতে চায়। বনাইদ বাবু মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোসাদ্দেক হোসেন বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে এ ধরনের শিক্ষার্থীদের আরও সহযোগিতা করা হলে ভবিষ্যতে তারা দেশ ও সমাজের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারবে।

আরো সংবাদ