প্রদীপসহ ৩১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে আরও ২টি মামলা দায়ের - কক্সবাজার কন্ঠ

বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২০-০৯-০৭ ১০:৪৭:৪৬

প্রদীপসহ ৩১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে আরও ২টি মামলা দায়ের

কক্সবাজার কন্ঠ ডেস্ক : বন্দুকযুদ্ধে হত্যার অভিযোগে কক্সবাজারের টেকনাফ থানার বহিস্কৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ৩১ জনের বিরুদ্ধে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের হয়েছে আদালতে।

৭ সেপ্টেম্বর দুপুরে জৈষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম (টেকনাফ-৩) মো. হেলাল উদ্দিনের আদালতে এই ২টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। দুই মামলায় আসামীদের মধ্যে ২৮ জন পুলিশ সদস্য এবং অন্য ৩ জন টেকনাফের স্থানীয় বাসিন্দা। এটিসহ এ পর্যন্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশের বিরুদ্ধে ১০টি হত্যার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের হল। টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নাজির পাড়ার মৃত নুর আহম্মদের স্ত্রী লায়লা বেগম বাদী হয়ে একটি এবং একই ইউনিয়নের ডেইলপাড়ার ছালে আহম্মদের স্ত্রী বাদী হয়ে আরেকটি মামলা দায়ের করেছেন।

বাদী লাইলা বেগমের আইনজীবী মোস্তাক আহম চৌধুরী বলেন, গত ২০১৯ সালের ১৯ মার্চ সকালে তার স্বামী নুর আহম্মদকে টেকনাফ পল্লী বিদ্যুৎ অফিস থেকে পুলিশ তুলে থানায় নিয়ে যায়। পরে স্বামীকে ছেড়ে দিতে ৪০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। পুলিশকে ৫ লাখ টাকা দেয়ার পরও বাকী টাকা না দেয়ায় ওইদিন রাতে মেরিন ড্রাইভ সড়কের রাজারছড়া এলাকায় নিয়ে নুর আহম্মদকে বন্দুকযুদ্ধের নামে হত্যা করে।

এ ঘটনায় দায়ের মামলাটি আদালত আমলে নিয়ে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় দায়ের মামলার নথিপত্র আদালতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান বাদীর আইনজীবী মোস্তাক আহমদ।

অন্যদিকে বাদী হালিমা খাতুনের আইনজীবী নুরুল হোসাইন নাহিদ বলেন, গত ২০১৯ সালের ১৮ অক্টোবর পুলিশ মোহাম্মদ আজিজকে বাড়ী থেকে তুলে নিয়ে যায়। পরে পুলিশ তার পরিবারের লোকজনের কাছে ৫ লাখ টাকা দাবি করে। কিন্তু ৫০ হাজার টাকা দেয়ার পরও ওইদিন রাতে মহেশখালিয়া পাড়া সংলগ্ন সমুদ্র সৈকত এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের নামে তাকে গুলি করে হত্যা করে।

এ ঘটনায় মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ১২ দিনের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় থানায় দায়ের মামলার নথিপত্র আদালতে প্রেরণের আদেশ দিয়েছে বলে জানান আইনজীবী নুরুল হোসাইন।

আরো সংবাদ