ফাইভ-জি জগতে ২০২০ সালে পা দেবে বাংলাদেশ - কক্সবাজার কন্ঠ

বুধবার, ৫ আগস্ট ২০২০ ২১শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বুধবার

প্রকাশ :  ২০২০-০১-০৭ ২১:০৮:১৬

ফাইভ-জি জগতে ২০২০ সালে পা দেবে বাংলাদেশ

মন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যতের পথ ফাইভ-জিকে শুধু কথা বলা বা ব্রাউজ করা প্রযুক্তি হিসেবে দেখা হয না, এটিকে ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবের মহাসডক বলা হয়। ফাইভ-জি শিল্প, বাণিজ্য, কৃষি, শিক্ষা এবং চিকিৎসা ব্যবস্থার উন্নযনে অভাবনীয ভূমিকা পালন করবে। ফাইভ-জি’র ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পিছিয়ে নেই উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ফাইভ-জি সম্প্রসারণে ইতোমধ্যে রোডম্যাপ তৈরি করা হয়েছে। ২০২৬ সালের মধ্যে সারাদেশে সম্প্রসারণের সময নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ১৬, ১৭ এবং ১৮ জানুযারি ডিজিটাল মেলায় সবচেয়ে গুরুত্ব দিয়ে ফাইভ-জি লাইভ দেখানো হবে। এর আগে ২০১৮ সালের ২৫ জুলাই ফাইভ-জি পরীক্ষামূলক দেখানো হয়েছিল।

Advertisements

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাইবার নিরাপত্তা বিষযে এ ধরনের আলোচনা এই প্রথম উল্লেখ করে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, ডিজিটালাইজেশন প্রক্রিযায় নিরাপত্তার বিষযটি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। আমেরিকান প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনায় আমেরিকান মালিকানাধীন কোম্পানির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যে অনেক সময আমাদের চ্যালেঞ্জে ফেলছে, সে বিষযটি তাদের অবহিত করা হয়েছে। বিষযটিকে তারাও গুরুত্ব দিয়ে দেখছেন। তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে আমাদের সংকটে ফেলে দেওয়া হয়। এর মাধ্যমে গুজব রটানো হয়। জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসের বিস্তার ঘটানো হয। এই নিরাপত্তা বিষযে সরকার এবং কোম্পানি পর্যায়ে আলোচনা অব্যাহত রাখা হবে।
Advertisements

মন্ত্রী বলেন, ১২ ডিসেম্বর ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ ঘোঘণা করেছে ২০০৮ সালে। সেখানে ২০০৯ সালে ব্রিটেন, ২০১৪ সালে ভারত। সবশেষ গত ৫ ডিসেম্বর পাকিস্তান বলেছে ডিজিটাল পাকিস্তান। আমরা অন্যদের পথ দেখিয়েছি। এ বিষয়ে জাতি হিসেবে আমরা অবশ্যই গর্ব করি।

আরো সংবাদ