বিপুল নকল ওষুধ ও ভুয়া চিকিৎসক সহ আটক ৫ - Coxsbazarkontho.com

শনিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২০ ১১ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শনিবার

বিষয় :

প্রকাশ :  ২০১৯-১২-২৮ ১৯:০৮:০৫

বিপুল নকল ওষুধ ও ভুয়া চিকিৎসক সহ আটক ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক : নকল ওষুধ বিক্রি ও চিকিৎসা সেবার নামে প্রতারণার দায়ে কক্সবাজার শহরের ‘সেবা মেডিক্যাল হল’র নামের একটি কথিত চিকিৎসা কেন্দ্রের ভুয়া চিকিৎসকসহ পাঁচজনকে আটক করেছে কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি)।
শনিবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকেলে শহরের বাজারঘাটা ও বার্মিজ মার্কেট এলাকার একটি ভবনের তৃতীয় তলা থেকে তাদের আটক করা হয়।


আটকরা হলেন, সদর উপজেলার জালালাবাদ এলাকার মৃত মোজাহের আহম্মেদের ছেলে কথিত ডাঃ মহিদুল ইসলাম (৩৩), চট্টগ্রামের রাউজান বাগোয়ান এলাকার মোঃ হানিফের ছেলে বর্তমান কক্সবাজার বাসটার্মিনাল লারপাড়ার এলাকার বাসিন্দা মোঃ ইয়াছিন (২৫), কক্সবাজার শহরের কালুরদোকান এলাকার রফিক উদ্দীনের ছেলে নাসির উদ্দিন (২৯), উখিয়া উপজেলার কোটবাজার চৌধুরী পাড়ার শামসুল আলমের ছেলে মোঃ ওসমান (১৯) এবং বগুড়া জেলার গাবতলী এলাকার মোঃ জাকিরের ছেলে মোঃ শাহীনকে (৩০) আটক করা হয়। সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ নকল ওষুধ জব্দ করা হয়। একই অভিযানে আরেক কথিত কবিরাজী চিকিৎসক বাজারঘাটার কসতুরী হার্বাল দাওয়া খানার কথিত চিকিৎসক সোলাইমানসহ আরো কয়েকজন পালিয়ে যায়। তবে সেখান থেকেও বিপুল পরিমাণ ভেজাল ওষুধ জব্দ করা হয়।
বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)’র পরিদর্শক মানস বড়ুয়া জানান, সেবা মেডিক্যাল হল এবং কস্তুরী হার্বাল দাওয়া খানার মতো কয়েকটি প্রতিষ্ঠান ভুয়া চিকিৎসা এবং নকল ওষুধ বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। তারা দালাল নিয়োগ করে গ্রাম থেকে শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা নিরক্ষর লোকজনকে প্রলোভনে ফেলে তাদের প্রতিষ্ঠানে নিয়ে যায়। সেখানে নানা প্রলোভন এবং ভয়ভীতি দেখিয়ে নকল ও কথিত চিকিৎসসেবা দিয়ে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নেয়। কিন্তু ভুক্তভোগীরা কোনো সুফল পায় না। ওইসব প্রতিষ্ঠানের পেশাদার দালালরা কক্সবাজার সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালের আশেপাশে অবস্থান করে ওইসব লোকজনকে ফাঁদে ফেলেন।
Advertisements

তিনি আরও জানান, টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ডেইঙ্গারকাটা এলাকার নাসিমা খাতুন (৪৫) নামে এক নারী ডিবি পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন কক্সবাজার শহরের বাজারঘাটা বার্মিজ মার্কেট এলাকার আব্দুল্লাহ গ্যারেজ বিল্ডিং এর ৩য় তলায় “সেবা মেডিক্যাল হল” নামে একটি প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসা নিতে যান তিনি। তাকে ভুয়া চিকিৎসা, পরীক্ষা-নিরিক্ষা ও ভেজাল ওষুধ দিয়ে ১৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় ওই প্রতিষ্ঠানের কথিত চিকিৎসক ও কর্মচারীরা। কিন্তু আরো ১৫ হাজার টাকা দেয়ার জন্য চাপ দেয়। এতে নিরূপায় হয়ে তিনি ডিবি পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন। আটক এবং পলাতক কথিত চিকিৎসকসহ প্রতারকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হচ্ছে বলেও জানান ডিবির এই পরিদর্শক।

আরো সংবাদ