রামুতে স্কুল ছাত্রী ধর্ষনের চেষ্টায় আইনগত সহায়তা পায়নি - কক্সবাজার কন্ঠ

সোমবার, ১ মার্চ ২০২১ ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২১-০২-১৮ ১৮:৫৭:৩৯

রামুতে স্কুল ছাত্রী ধর্ষনের চেষ্টায় আইনগত সহায়তা পায়নি

রামুতে স্কুল ছাত্রী ধর্ষনের চেষ্টায় আইনগত সহায়তা পায়নি

মোহাম্মদ ফারুক : কক্সবাজার রামু থানায় গত ৯ ফেব্রুয়ারি ৫ম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টা করা হয়েছে মর্মে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের থোয়াইংগা কাটা এলাকার এক স্কুলছাত্রী।

কিন্তু ৯ দিনের ব্যবধানে কোনো ধরনের পদক্ষেপ নেয়নি থানা পুলিশ। এমন অভিযোগ করেন ভোক্তভোগী স্কুলছাত্রীর পরিবার।

ওই স্কুলছাত্রীর বাবা মোস্তাক আহমেদ জানান, তার মেয়ের শ্রীলতাহানীর চেষ্টার অভিযোগে গত ৯ ফেব্রুয়ারি রামু থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অদ্যাবধি কোনো ধরনের পদক্ষেপ নেয়নি পুলিশ। একারণে হতাশ হয়ে পড়েছেন তিনি।

মোস্তাক আহমেদ আরও জানান, অভিযোগের বিষয়ে জানতে পেরে তার মেয়ের সর্বনাশ করার চেষ্টাকারি লম্পট ও তার সহযোগীরা প্রতিনিয়ত তাদেরকে হুমকি দিচ্ছে।এতে পরিবার নিয়ে আতঙ্কে আছেন তিনি।

সুত্রে জানা যায়, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযোগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রামু থানার এসআই কামরুল ইসলাম জানান, তাঁর সাথে কেউ যোগাযোগ করেনি। অভিযোগকারীকে উনার সাথে যোগাযোগ করতে বলেন। আজ আবার জানতে চাইলে এস‌আই কামরুল ইসলাম বলেন,এবিষয়ে ছেলের পক্ষ থেকেও অভিযোগ করা হয়েছে। উভয় পক্ষ নিয়ে আগামীকাল বসবো।

রামু থানার অফিসার ইনচার্জ আজমিরুজ্জামান বলেন, অতি শীঘ্রই সুস্থ তদন্তের মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য গত ৬ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৮ টার দিকে রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের থোয়াইংগা কাটা এলাকায় ৫ম শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টা করা হয়েছে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার থোয়াইংগা খাটার এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে একই এলাকার সালমান নামে এক বখাটে স্কুলে যাওয়া আসার সময় প্রতিনিয়ত কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। গত শনিবার রাতে ওই ছাত্রী প্রাকৃতিক ডাকে ঘর থেকে বের হলে আগে থেকে উৎপেতে থাকা লম্পট সালমান তাকে পেছন থেকে জোরপূর্বক মুখ চেপে ধরে পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষনের চেষ্টা করে।

এসময় ওই ছাত্রী চিৎকার দিলে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে ছুটে গেলে ধর্ষণ চেষ্টাকারী লম্পট সালমান পালিয়ে যায়। ওই ছাত্রীর মা জানান, পরের দিন তার মেয়েকে নিয়ে তারা রামু থানায় যাওয়ার পথে লম্পট সালমানের সহযোগী আব্দুল হক মনু হুমকি দিয়ে বলেন, মামলা করতে অনেক টাকা লাগে এতো টাকা কোথায় পাবে এ কথা বলে সে বিচার করে দেবে বলে আশ্বাস দিলে তারা বাড়িতে চলে আসে।

পরে আজকাল করে কালক্ষেপণ করতে থাকে। অবশেষে ভূক্তভোগি পরিবার নিরুপায় হয়ে অভিযুক্ত বখাটের বিরুদ্ধে রামু থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে ।

আরো সংবাদ