শহরের পানবাজার সড়ক চলাচলের জন্য উন্মুক্ত - Coxsbazarkontho.com

শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৫ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শুক্রবার

বিষয় :

প্রকাশ :  ২০১৯-০৬-১২ ১৪:৫৭:৪০

শহরের পানবাজার সড়ক চলাচলের জন্য উন্মুক্ত

পুলিশ সুপারের প্রতি প্যানেল মেয়র মাবুর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ
শফিউল্লাহ শফি, কক্সবাজার: চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হলো কক্সবাজার শহরের গুরুত্বপূর্ণ পানবাজার সড়কটি। দীর্ঘদিন পর পানবাজার সড়কটি উন্মুক্ত করে দেয়ার কারণে যেমনি খুশি স্থানীয় ব্যবসায়ীরা তেমনি স্বস্তির নিঃশ^াস ফেলছেন ওই সড়ক দিয়ে যাতায়াতকারী লোকজন। ১২ জুন বুধবার সকালে কক্সবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ মো. মাহাবুবুর রহমান চৌধুরীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় পানবাজার সড়ক থেকে দীর্ঘদিনের প্রতিবন্ধকতার জঞ্জাল সরিয়ে সাধারণ মানুষের নির্বিঘœ যাতায়াত আর যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। পাশাপাশি উক্ত সড়ক থেকে সকল প্রকার ময়লা-আবর্জনাও পৌরসভার পক্ষ থেকে পরিস্কার করানো হয়। দীর্ঘদিন পর বুধবার থেকে বর্তমানে পানবাজার সড়কটি মানুষের যাতায়াত ও যান চলাচলের জন্য নিরাপদ এবং পরিচ্ছন্ন সড়ক হিসেবে রূপলাভ করেছে। এদিকে দীর্ঘ সময়ের পর হলেও ব্যবসায়ী ও স্থানীয় লোকজনের দাবীর প্রেক্ষিতে পানবাজার সড়কের উপর থেকে ব্যারিকেট সরিয়ে উন্মুক্ত করে দেয়ায় স্থানীয় সুশীল সমাজ, ব্যবসায়ী, যাতায়াতকারী সাধারণ মানুষ ও অনেক যানবাহন চালক প্যানেল মেয়র মাহাবুবুর রহমান চৌধুরীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। পানবাজার সড়কের ব্যবসায়ী মো. ইলিয়াছ বলেন, সড়কটি বন্ধ থাকার কারণে দীর্ঘদিন ধরে তাদের ব্যবসার মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে। বেশী ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছে ঈদের সময়। কারণ সড়কটি বন্ধ থাকার কারণে অনেক ক্রেতা তাদের ব্যবসা প্রতিষ্টান পছন্দের জিনিস ক্রয় করতে যাননি। একই সুরে কথা বলেন ওই সড়কের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নাজিম উদ্দিন। তিনি বলেন¬-ঈদের সময় সড়কটি বন্ধ থাকার কারণে সে ব্যবসা করতে পারেনি। ফলে তার অনেক লোকসান হয়েছে। বর্তমানে সড়কটি উন্মুক্ত করে দেয়ায় নির্বিঘেœ ব্যবসা করতে পারবেন। কক্সবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী বলেন, ব্যবসায়ীদের স্বার্থ এবং সাধারণ মানুষের নির্বিঘœ যাতায়াতের কথা চিন্তা করে পানবাজার সড়কটি খুলে দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, ওই সড়কে যাতে কোন যানজটের সৃষ্টি না হয় সেজন্য রাস্তার উপরে কোন ঔষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের মোটর সাইকেল রাখতে দেয়া হবেনা। যদি নির্দেশ অমান্য করে কেউ মোটরসাইকেল রাখে তাহলে কঠিন ব্যবস্থা নেয়া হবে। পানবাজার সড়কের দীর্ঘদিনের ব্যারিকেট উঠিয়ে সড়ক উন্মুক্ত করার বিষয়ে প্যানেল মেয়র মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী আরো বলেন-কক্সবাজার পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন বিপিএিম ও সহকারী পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) বাবুল চন্দ্র বণিকের আন্তরিক সহযোগিতার কারণে তা করা সম্ভব হয়েছে। সেজন্য তিনি পুলিশ সুপার ও এএসপি (ট্রাফিক)’কে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানান।

আরো সংবাদ

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার
সেপ্টেম্বর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০