সৈকতে মানুষের ঢল বিসর্জনে দেবীকে বিদায় - কক্সবাজার কন্ঠ । কক্সবাজারের মুখপত্র

শনিবার, ৬ জুন ২০২০ ২৩শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শনিবার

প্রকাশ :  ২০১৯-১০-০৮ ১৩:৪৩:০৩

সৈকতে মানুষের ঢল বিসর্জনে দেবীকে বিদায়

নুরুল ইসলাম কক্সবাজার: ভক্তদের আনন্দ-অশ্রুতে সিক্ত হয়ে প্রতিমা বিসর্জনে বিদায় নিলেন অসুর দলনী দুর্গা। প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে কৈলাসে স্বামীগৃহে ফিরে যাচ্ছেন দেবী। এক বছর পর আবার তার ভক্তদের মাঝে পিতৃগৃহে ফিরে আসবেন। ৮ অক্টোবর বিকালে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবনী পয়েন্ট দিয়ে লাখো মানুষের উপস্থিতিতে শতাধিক প্রতিমা বিসর্জন দয়া হয়েছে। এর আগে কক্সবাজার জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ এর আয়োজনে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

Advertisements
উক্ত সভায় কক্সবাজার জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট রনজিত দাশের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক বাবুল শর্মার সঞ্চলনায় বিজয়া দশমীর অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন, পুলিশ সুপার এবি এম মাসুদ হোসেন, কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার জিল্লুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি অধ্যাপক প্রিয়তোষ শর্মা চন্দন প্রমুখ। এসময় বক্তারা বলেন, এই জনসমাগমই বাংলাদেশের সকল ধর্মে মানুষের সম্প্রতির বহিঃপ্রকাশ। এমন সম্প্রীতির উৎসবের মাধ্যমেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে তার উচ্চতায়। এদিকে দুর্গোৎসবের দশমীতে মঙ্গলবার ম-পে ম-পে দশমীর বিহীত পূজার মধ্য দিয়ে ঘটে সমাপ্তি। অতঃপর দেবীর বিসর্জন আর ‘শান্তিজল’ গ্রহণ। গত শুক্রবার বোধনে অরুণ আলোর অঞ্জলি নিয়ে আনন্দময়ী মা উমাদেবীর আগমন ঘটে মর্ত্যে। হিন্দু বিশ্বাসে-টানা পাঁচদিন মৃন্ময়ীরূপে ম-পে ম-প থেকে ফিরে যাচ্ছেন কৈলাসে স্বামী শিবের সান্নিধ্যে। আর শান্তিজল গ্রহণে শেষ হচ্ছে বাঙালি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। ধান-দূর্বার দিব্যি, ফের এসো মা মা তুমি আবার এসো ভক্তদের এমন আকুতিতে বিদায় নিলেন দেবী।
গতকাল সকাল থেকেই বিহিত পূজার পর ভক্তের কায়মনো প্রার্থনা আর ঢাক-উলুধ্বনি-শঙ্খনিনাদে হিন্দু রমণীদের পরম আকাঙ্গিত সিঁদুর খেলায় মুখর হয়ে ওঠে মন্দিরগুলো। একদিকে বিদায়ের সুর। অন্যদিকে উৎসবের আমেজ। এদিকে কক্সবাজার জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ সূত্র জানিয়েছেন, প্রতিমা বিসর্জনকে ঘিরে প্রতিবছর কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে নামে মানুষের ঢল। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। বিকালে সৈকতের প্রায় ২ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠে। সৈকতের বালিয়াড়ি পরিণত হয় মানুষের মিলন মেলায়। পূজারী, ভক্ত, দর্শনার্থী, পর্যটকসহ সব সম্প্রদায়ের মানুষের মিলন মেলায় পরিণত হয় কক্সবাজার সৈকত। দুপুরের পর থেকে বিভিন্ন ম-প থেকে গাড়িতে করে সারিবদ্ধভাবে প্রতিমাগুলো সৈকতে আসতে থাকে। এরপর শতাধিক প্রতিমা সাগরে বিসর্জন দেন ভক্ত-পূজারীরা।
Advertisements
এ সময় ঢাকঢোল, কাঁসরের তালে আরতির বাদ্য বাজনায় ‘মা দুর্গার জয়’ শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে সাগর তীর।

আরো সংবাদ