কক্সবাজারবাসীকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে জিএম রহিম উল্লাহ

জসিম সিদ্দিকী: কক্সবাজারবাসীকে কাঁদিয়ে চিরদিনের জন্য বিদায় নিয়েছেন জননেতা জিএম রহিম উল্লাহ। আর ফিরে আসবেন না অজপাড়া গায়ের এই জননেতা। কারো সাথে দেখা মিলবে না সাদামাঠা মানুষটির।
কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও কক্সবাজার জেলা জামায়াতের সেক্রেটারী জিএম রহিম উল্লাহ’র (৫০) নামাজে জানাযা সম্পন্ন হয়েছে। ২১ নভেম্বর সকাল ১১ টায় কক্সবাজার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে তার প্রথম নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। বেলা আড়াইটার দিকে ২য় নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয় তার গ্রামের বাড়ি কক্সবাজার সদর উপজেলার ভারুয়াখালীতে। ইমামতি করেন জামায়াতের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ২০ দলীয় জোটের শীর্ষনেতা মাওলানা আবদুল হালিম।
জামায়াতের এই নেতার নামাজে জানাযায় দলমত নির্বিশেষে সব শ্রেণির মানুষ অংশ গ্রহণ করে। পার্শ্ববর্তী কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়াম, পৌর প্রিপ্যারেটরী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ, আশপাশের সড়ক উপসড়কে শোকাহত জনতা অবস্থান নেয়। যে যেখানে ছিল সেখান থেকে জানাযার নামাজে অংশ নেয়।
এতে জানাযা পূর্বে সমাবেশে কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, চট্টগ্রাম মহানগর জামায়াতের আমীর মোহাম্মদ শাহজাহান, বিএনপির কেন্দ্রীয় মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সাবেক এমপি লুৎফুর রহমান কাজল, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের লে.কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমদ, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, জেলা জামায়াতের আমীর মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান, নায়েবে আমীর ঝিলংজা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল গফুর, টেকনাফের হোয়াইক্ষ্যং ইউপি চেয়ারম্যান জেলা জামায়াতের নাযেবে আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা নুর আহমদ আনোয়ারী, শিবিরের কেন্দ্রীয় ছাত্র আন্দোলন বিষয়ক সম্পাদক তৌহিদ হোসেন, চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট ফরিদ উদ্দিন খান, অধ্যক্ষ নুর হোসেন সিদ্দিকী, কুমিল্লা ভিকটোরিয়া কলেজের সাবেক ভিপি অধ্যক্ষ রেজাউল করিম, কক্সবাজার পৌরসভার সাবেক মেয়র সরওয়ার কামাল, কক্সবাজার শহর জামায়াতের আমীর সাইয়েদুল আলম, ইসলামী ঐক্যজোটের কক্সবাজার জেলা সভাপতি হাফেজ মাওলানা সালামত উল্লাহ, রামু উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা জামায়াতের আমীর ফজলুল্লাহ মো হাসান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর কাশেম, কক্সবাজার সদর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান এড. সলিম উল্লাহ বাহাদুর, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শহিদুল আলম বাহাদুরসহ প্রমুখ। আর জেলা প্রশাসের পক্ষ থেকে জানাযায় অংশ গ্রহণ করে বক্তব্য দেন কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এএইচ এম মাহমুদুর রহমান। পরিবাবের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন জাহিদ ইফতেখার।
উল্লেখ্য, জামায়াত নেতা জিএম রহিম উল্লাহ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ২০ নভেম্বর কক্সবাজার শহরের হোটেল সাগরগাঁওতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদের বিপুল ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান। প্রশাসনিক মূল্যায়নে তিনি অত্যন্ত সৎ ও দক্ষ প্রশাসক এবং সব দলের কাছে গ্রহণযোগ্য ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*