সীমান্তে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের শঙ্কায় সতর্ক বিজিবি

জসিম সিদ্দিকী, কক্সবাজার: নাফনদী পার হয়ে ফের রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঘটতে পারে এমন শঙ্কায় কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্তে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বিজিবি। মিয়ানমারে ফের অস্থিতিশীলতার কারণে এ সতর্কতা নেয়া হয়েছে বলে জানান টেকনাফ বিজিবির ২ নম্বর ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আছাদুদ-জ্জামান চৌধুরী। তিনি সংবাদকে বলেন, রোহিঙ্গা আর মাদক ঠেকাতে সীমান্তে টহল দিচ্ছে বিজিবির সদস্যরা। যে কোনো সময় অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় সতর্ক অবস্থানে রয়েছি।
এদিকে বিজিবি জানায়, টেকনাফ সীমান্তের হোয়াইক্যং, উনচিপ্রাং, ঝিমংখালী, খারাংখালী, হ্নীলা, লেদা, নয়াপাড়া, দমদমিয়া, টেকনাফ সদর, নাজিরপাড়া, সাবরাং ও শাহপরীর দ্বীপে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বিজিবি।এ ছাড়াও সীমান্ত এলাকায় বসবাসরত মৎস্যজীবীদের নাফনদীতে মাছ ধরা ও চলাচলে সীমাবদ্ধতা বজায় রাখতেও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
টেকনাফ লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান আবদুল মতলব বলেন, নতুন করে মিয়ানমারে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে, তা রোহিঙ্গাদের ওপর প্রভাব পড়লে আবারও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা রয়েছে।
এ ছাড়া গত এক সপ্তাহে ভারত থেকে কুমিল্লা হয়ে দুই দফায় ৯৩ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আশ্রয় নিয়েছে বলে জানান উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পের ইনচার্জ রেজাউল করিম।
উল্লেখ্য, গত বছরের ২৫ আগস্টের পর মিয়ানমারে সেনাবাহিনীদের অভিযানের মুখে পড়ে ৭ লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। এর আগে আসে ৪ লাখের বেশি রোহিঙ্গা। সব মিলিয়ে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের ৩২টি রোহিঙ্গা শিবিরের বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গা অবস্থান করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*