দেশ সুরক্ষিত আছে,বিমান হামলার পর মোদি

ভারত সুরক্ষিত হাতে আছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আজ মঙ্গলবার পাকিস্তানের নিয়ন্ত্রণরেখা (লাইন অব কন্ট্রোল) পেরিয়ে দেশটির জঙ্গি সংগঠন জয়েশ-ই-মোহাম্মদ, হিজবুল্লাহ মুজাহেদীন ও লস্কর-ই-তায়েবার স্থাপনায় ভারতের বিমানবাহিনী হামলা চালানোর পর মোদি এ কথা বলেন।

রাজস্থানের চরু থেকে প্রতিক্রিয়ায় নরেন্দ্র মোদি বলেনআমি আপনাদের আশ্বস্ত করে বলছি দেশ সুরক্ষিত হাতে আছে। আমি এই  মাটিকে  সাক্ষী রেখে বলছি আমার দেশের মাথা নীচু হতে দেব না। আমি কথা দিচ্ছি দেশের গর্ব নষ্ট হতে দেব না।

ভোরে ভারতের বিমানবাহিনী এ হামলায় ২০০ থেকে ৩০০ জন নিহত হয়েছে বলে দাবি করছে নয়াদিল্লি। বিমানবাহিনীর সূত্রের বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, ভারতীয় বিমানবাহিনীর ১২টি মিরেজ ২০০০ জেট বিমান এ হামলায় অংশ নেয়। তাদের ফেলা ১ হাজার কেজি বোমা বর্ষণে ২০০ থেকে ৩০০ জন মারা গেছে।

লেজারপরিচালিত এ বোমা ইসরাইলি প্রযুক্তিতে বানানো এবং এটি প্রথম কারগিলে ব্যবহার করা হয়েছিল। এ বিমান হামলার ঘটনা ঘটে দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের খবরে জানানো হয়, ভোরে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর বৈঠকে বসেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নিরাপত্তাবিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি, প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালসহ ভারত সরকারের একাধিক শীর্ষ কর্মকর্তা।

বৈঠকে মোদি আরও বলেনআপনারা  আমাকে  বিশ্বাস করেন এবং ভালোবাসেন বলেই আমি এত কাজ  করতে পারি। আর আপনাদের বলে রাখি আমাদের সরকার ব্যক্তির চেয়ে সমষ্টিকে অধিক গুরুত্ব দেয়।

এদিকে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি এ বিমান হামলাকে স্বাগত জানিয়েছে। এক টুইটে তিনি বলেন, ‘আমি ভারতীয় বিমানবাহিনীর পাইলটদের সালাম জানাই।’

অন্যদিকে পাকিস্তানের ওপর হামলা চালানোয় ভারতীয় বিমানবাহিনীর  প্রশংসা করেছেন দেশটির মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলায় ৪০ জন জওয়ানের মৃত্যু হয়। এর জবাব দিতেই ভারত এ হামলা চালিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*