উখিয়ায় স্পেশালাইজড হসপিটাল উদ্বোধন ৫ জুলাই - কক্সবাজার কন্ঠ

সোমবার, ২০ মে ২০২৪ ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সোমবার

প্রকাশ :  ২০২২-০৭-০৩ ১৪:১১:৩১

উখিয়ায় স্পেশালাইজড হসপিটাল উদ্বোধন ৫ জুলাই

নিজস্ব প্রতিবেদক : কক্সবাজারের উখিয়ায় সরকারের সহযোগিতায় জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর এর অর্থায়নে যাত্রা শুরু করেছে একটি বিশেষায়িত হাসপাতাল। ৫ জুলাই এ বহুমুখি সেবা সমৃদ্ধ হাসপাতালটির উদ্বোধন করবেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান।

ইতোমধ্যে, স্থানীয় জনগোষ্ঠী ও ক্যাম্পে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের বিশেষায়িত এবং আধুনিক চিকিৎসাসেবা প্রদানের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত উখিয়া স্পেশালাইজড হসপিটাল নামে হাসপাতালটি পরিচালনায় সরকারের দুটি প্রতিষ্ঠান ও ইউএনএইচআর এর মধ্যকার ত্রিপক্ষীয় সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) ঢাকায় , সরকারের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের পক্ষে সচিব ড. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় এর পক্ষে সচিব কামরুল হাসান এবং ইউএনএইচসিআর এর পক্ষে বাংলাদেশে রিপ্রেজেন্টেটিভ জোহানেস ক্ল এই স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

এসময়, স্বাস্থ্য অধিপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার শাহ্ রেজওয়ান হায়াতসহ অন্যান্য সংশ্লিষ্ট কর্মকতাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়কের পাশে উখিয়া কলেজ সংলগ্ন টিএন্ডটি এলাকায় ১৭ হাজার ৫০০ বর্গফুট আয়তনের জায়গা নিয়ে গড়ে ওঠা এই হাসপাতালের মোট কক্ষ সংখ্যা ৬০টি।

ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, হাসপাতালে সেবাপ্রার্থীরা চোখ ও দাঁতের চিকিৎসার পাশাপাশি অপারেশন সার্পোটসহ বিভিন্ন ধরণের বিশেষায়িত স্বাস্থ্যসেবা পাবেন।

স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ ও ইউএনএইচসিআর-এর তিনটি সহযোগী সংস্থা গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র, রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল ও অরবিস এর বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগণ এবং স্বাস্থ্যসেবা কর্মীরা নিরবচ্ছিন্ন সেবা দিতে হাসপাতালটিতে নিয়োজিত থাকবেন।

প্রসঙ্গত ২০১৭ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর বলপূর্বক ব্যস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিক ও স্থানীয় জনগণের চিকিৎসার জন্য মালেশিয়ান সরকার মালেশিয়ান ফিল্ড হাসপাতাল নামে চালু করে। প্রায় চার বছর পরিচালনার পর ২০২১ সালের ১৪ মার্চ মালয়েশিয়ান সরকার বাংলাদেশ সরকারের কাছে হাসপাতালটি হস্তান্তর করে।

পরে, বাংলাদেশ সরকার এ হাসপাতালটিকে স্পেশালাইজড হাসপাতাল হিসেবে গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নেয়। ইউএনএইচসিআর, বাংলাদেশ সরকারের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে তহবিল সংগ্রহ করে এবং অবকাঠামো গড়ে তোলার সাথে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রীর যোগান দেয়।

আরো সংবাদ