উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিন-প্রধানমন্ত্রী  - কক্সবাজার কন্ঠ

রোববার, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২২শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২২-১২-০৭ ১২:৫৪:২১

উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিন-প্রধানমন্ত্রী 

উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিন-প্রধানমন্ত্রী 

জসিম সিদ্দিকী, কক্সবাজার : দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে আবারও ক্ষমতায় আনতে কক্সবাজারবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জনসভায় উপস্থিত জনতাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে আমি আপনাদের কাছে ওয়াদা চাই আপনারা নৌকা মার্কায় ভোট দিবেন। আওয়ামী লীগকে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দেবেন কি না ওয়াদা চাই। আপনারা হাত তুলে ওয়াদা করেন। এসময় সমাবেশে উপস্থিত জনতার কাছ থেকে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার ওয়াদা আদায় করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জনতা দুই হাত তুলে ভোট দেওয়ার ওয়াদা করেন। বুধবার (৭ ডিসেম্বর) বিকালে কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশাল জনসভায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় এসেছে তখনই দেশের উন্নয়ন হয়েছে। আমি এই কক্সবাজারে অসংখ্য উন্নয়নমূলক কাজের ভিত্তিফলক স্থাপন করেছি। পরে তিনি আওয়ামী লীগ সরকারের আমলের নানা উন্নয়নমূলক কর্মকাÐ তুলে ধরেন। এর আগে, এক হাজার ৩৯৩ কোটি টাকা ব্যয়ে কক্সবাজারের ২৯টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। একই সঙ্গে ৫৭২ কোটি টাকা ব্যয়ে আরও ৪টি প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন তিনি। এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিকাল ৪টায় মঞ্চে উপস্থিত হলে স্টেডিয়ামে উপস্থিত লাখো নেতাকর্মী ‘জয় বাংলা’, ‘জয় বঙ্গবন্ধু’ ¯েøাগানে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান। প্রধানমন্ত্রীও হাত নেড়ে নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছে জানান।

জনসভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, আওয়ামীলীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি, সিরাজুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, মাহবুবুল আলম হানিফ, বাহাউদ্দিন নাছির, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, ড. হাসান মাহমুদ, মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, আমিনুল হক আমিন, আশিকুর রহমান, ব্যরিস্টার বিপ্লব বড়–য়া, জাফর আলম এমপি, আশেক উল্লাহ রফিক এমপি, সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি, কানিজ ফাতেমা আহমেদ এমপি, প্রশান্ত ভ‚ষণ বড়–য়াসহ সিনিয়র নেতারা।

উদ্বোধন করা ২৯ প্রকল্প হল, কক্সবাজার গণপূর্ত উদ্যান, বাহারছড়া বীর মুক্তিযোদ্ধা মাঠ, কুতুবদিয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ভবন, উপজেলা ভূমি অফিস ভবন, পেকুয়া, কক্সবাজার জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয় ভবন, শেখ হাসিনা জোয়ারিয়ানালা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এর চার তলা একাডেমিক ভবন, আবদুল মাবুদ চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের চার তলা একাডেমিক ভবন, মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এর চার তলা একাডেমিক ভবন, কক্সবাজার জেলার লিংক রোড-লাবনী মোড় সড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ, রামু-ফতেখাঁরকুল-মরিচ্যা জাতীয় মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ, টেকনাফ-শাহপরীর দ্বীপ জেলা মহাসড়ক এর হাড়িয়াখালী হতে শাহপরীরদ্বীপ অংশ পুন:নির্মাণ, প্রশস্তকরণ এবং শক্তিশালীকরণ, বাঁকখালী নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ, নিষ্কাশন, সেচ ও ড্রেজিং প্রকল্প (১ম পর্যায়), শাহপরীরদ্বীপে সী ডাইক অংশে বাঁধ পুন:নির্মাণ ও প্রতিরক্ষা কাজ, ক্ষতিগ্রস্ত পোল্ডার সমূহের পুর্নবাসন প্রকল্প, রামু কলঘর বাজার-রাজারকুল ইউপি সড়কে বাঁকখালী নদীর উপর ৩৯৯.০০ মিটার দীর্ঘ সাংসদ ও রাষ্ট্রদূত ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরী সেতু, কক্সবাজার জেলায় নবনির্মিত ৬টি ইউনিয়ন ভূমি অফিস ভবন, ৪টি উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন (রামু, টেকনাফ, মহেশখালী ও উখিয়া),কক্সবাজার পৌরসভার এয়ারপোর্ট রোড আরসিসিকরণ ও অন্যান্য, শহিদ সরণি আরসিসিকরণ ও অন্যান্য, বীর শ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়াম সড়ক আরসিসিকরণ ও অন্যান্য, নাজিরারটেক শুটকি মহাল সড়ক আরসিসিকরণ ও অন্যান্য, টেকপাড়া সড়ক আরসিসিকরণ ও অন্যান্য, সী বীচ রোড আরসিসিকরণ ও অন্যান্য, মুক্তিযোদ্ধা সরণি আরসিসিকরণ ও অন্যান্য, সৈকত-স্বরণ আবাসিক এলাকা সড়ক আরসিসিকরণ ও অন্যান্য, কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির নতুন ভবন।

ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন, বাংলাদেশ ওশানোগ্রাফিক রিসার্চ ইনস্টিটিউট (২য় পর্যায়) শীর্ষক প্রকল্প, কুতুবদিয়া উপজেলাধীন ধুরুং জিসি মিরাখালী সড়কে ধুরুংঘাটে ১৫৩.২৫ মিটার জেটি এবং আকবর বলি ঘাটে ১৫৩.২৫ মিটার জেটি নির্মাণ, মহেশখালী উপজেলাধীন মহেশখালী গোরকঘাটা ঘাটে জেটি নির্মাণ, বাংলাদেশ-মায়ানমার সীমান্ত নিরাপত্তা উন্নত করার জন্য উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলায় নাফনদী বরাবর পোল্ডার সমূহের (৬৭/এ, ৬৭, ৬৭/বি এবং ৬৮) পুর্নবাসন প্রকল্প।

দুপুর বারোটার পরপর কোরআান, গীতা, ত্রিপিটক ও বাইবেল পাঠের মধ্য দিয়ে শুরু হয় জনসভার আনুষ্ঠানিকতা। এর পর কক্সবাজারের স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা একে একে বক্তব্য রাখেন। ১১ টা থেকে চলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এদিকে বুধবার সাড়ে ১১ টার পর পরই প্রধানমন্ত্রী উখিয়া উপজেলার সমুদ্র তীরবর্তী ইনানীতে বাংলাদেশসহ ২৮টি দেশের নৌবাহিনী ও উপকূলীয় সংগঠনগুলোর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ৪ দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক ফ্লিট রিভিউ-২০২২ এর উদ্বোধন করেন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশ নৌবাহিনী এ আইএফআরের আয়োজন করছে। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ইতালি, সৌদি আরব, ভারত, চীন, কোরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, তুরস্ক, নেদারল্যান্ডস এবং স্বাগতিক বাংলাদেশসহ এতগুলো দেশের অংশগ্রহণে এটি দেশের প্রথম আইএফআর।

আইএফআর-২০২২ বিভিন্ন দেশের নৌবাহিনীর জন্য তাদের দক্ষতা, নৌ কূটনীতি, সদিচ্ছা এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সহযোগিতা প্রদর্শনের জন্য একটি আদর্শ প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে।

আরো সংবাদ