কক্সবাজার পাসপোর্ট অফিসের বিরুদ্ধে মানববন্ধন - কক্সবাজার কন্ঠ

বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২২ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বৃহস্পতিবার

প্রকাশ :  ২০২২-১১-০৮ ১২:৩৩:৪২

কক্সবাজার পাসপোর্ট অফিসের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

কক্সবাজার পাসপোর্ট অফিসের বিরুদ্ধে মানববন্ধন
সংবাদটি শেয়ার করুন

বার্তা পরিবেশক :  কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে লাগাতার সীমাহীন অনিয়ম-দুর্নীতি ও গ্রাহকদের হয়রানি বন্ধ এবং জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) দিয়ে পাসপোর্ট প্রদানসহ অনতিবিলম্বে দুর্নীতিবাজ সহকারী পরিচালকের শান্তিমূলক দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) সকাল ১০টায় জেলার গণমানুষের দাবি আদায়ের সামাজিক “আমরা কক্সবাজারবাসী” শহর শাখার উদ্যোগে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সংগঠনটির শহর শাখার সভাপতি সফিনা আজিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা শাখার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের জেলা শাখার সহ সভাপতি যথাক্রমে- কমরেড সমীর পাল, মেহেরুজ্জামান, কামাল উদ্দিন রহমান পেয়ারো, মাহবুবুল আলম মাহাবু, এবং সাংবাদিক এম আর খোকন, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দীন, সাংগঠনিক সম্পাদক সাংবাদিক মহসীন শেখ,  মৌলভী ইয়াসিন হাবিব, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মুজিবুল হক, শহর শাখার সিনিয়র সহ সভাপতি সাংবাদিক শহিদুল্লাহ, কল্লোল দে, এমইউপি স্বপন কান্তি দে,তরুণ গবেষক মোহাম্মদ ইলিয়াস মিয়া, শহর শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল রিফাত, মোহাম্মদ সেলিম, শামীম চৌধুরী, শহর শাখার আওতাধীন ৭নং ওয়ার্ডের সভাপতি ডাক্তার ছৈয়দ নুর ও সাধারণ সম্পাদক শেফায়েত কামাল সৌরভ।

সংগঠনের শহর শাখার সাধারণ সম্পাদক কামাল উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন, জেলা শাখার মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মা টিনটিন রাখাইন, নাজমা সুলতানা রুমা ও শায়েখ আহমদ প্রমূখ।

সভায় বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজারের স্থানীয় লোকদের পাসপোর্ট করতে আবেদনকারীর জন্ম নিবন্ধন, জাতীয় পরিচয়পত্র(এনআইডি) স্মার্টকার্ড, পিতা মাতার জাতীয় পরিচয়পত্র থাকা সত্তে¡ও চেয়ারম্যান কর্তৃক জাতীয়তা সনদ, রোহিঙ্গা নয় মর্মে প্রত্যয়ন ও অন্যান্য অপ্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিতে হয়।

অহেতুক এসব অপ্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করতে পাসপোর্টের আবেদনকারীকে প্রত্যেক ক্ষেত্রে শুধু চরম ভোগান্তি পোহাতে হয় তা নয় অর্থিক ক্ষতিরও সম্মুখীন হতে হয়।

তাছাড়া নতুন পাসপোর্ট করতে সেসব ডকুমেন্টস দিতে হয় আবার পাসপোর্ট রিনিউ করতেও একই কাগজপত্র দিতে হয়। ফলে কক্সবাজারের নাগরিকরা ব্যাপক হয়রানির সম্মূখীন হচ্ছে। তাছাড়া পাসপোর্ট হাতে পেতে ইচ্ছেকৃত বিলম্বের কারণে বহু মানুষকে সীমাহীন সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়।

বক্তৃারা আরও বলেন, পাসপোর্ট অফিস গেলেই সাধারণ মানুষকে সেখানে দায়িত্বরত কর্মকর্তা, কর্মচারী থেকে শুরু করে আনসার সদস্যদের হাতে নাজেহাল হতে হয়। এসবের কারণে পাসপোর্ট প্রার্থীদের দালালদের খপ্পরে পড়তে হয়। বক্তারা তাদের বক্তব্যে অভিযোগ তুলে বলেন, পাসপোর্ট অফিসে দায়িত্বরতদের সঙ্গে যোগসাজশে মাঠে রয়েছে বিশাল দালাল সিন্ডিকেট। তাদের খপ্পরে পড়ে বহু মানুষ নিঃস্ব হয়ে পড়েছে। পাশাপাশি, কক্সবাজারে সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে যদি দুর্নীতি বন্ধ না হয় তাহলে কঠোর লাগাতার আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করেছেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এছাড়াও সমাবেশে বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং জেলার সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে পাসপোর্ট অফিসে দুর্নীতি বন্ধের দাবিতে জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রধান করেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। জেলা প্রশাসকের পক্ষে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান স্মারকলিপি গ্রহণ করেন।


সংবাদটি শেয়ার করুন
 
 0   
  
      

আরো সংবাদ