করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু, শনাক্ত ১৩ হাজার ৩২৩ - কক্সবাজার কন্ঠ

বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর ২০২২ ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বৃহস্পতিবার

প্রকাশ :  ২০২১-০৭-১৯ ১২:১৮:০৫

করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু, শনাক্ত ১৩ হাজার ৩২৩

করোনায় শনাক্ত নামল ১০ হাজারের নিচে, মৃত্যু ৩০
শেয়ার করুন

নিউজ ডেস্ক :  দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এক দিনের মৃতের সংখ্যায় এটিই সর্বোচ্চ। এ নিয়ে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১৮ হাজার ১২৫ জন। তবে মৃতের তুলনায় কমেছে সংক্রমণের হার।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও ১৩ হাজার ৩২১ জন। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ লাখ ১৭ হাজার ৩১০ জনে। সোমবার (১৯ জুলাই) করোনাবিষয়ক স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে ১১ জুলাই সর্বোচ্চ ২৩০ জন মারা গিয়েছিলেন। কাল পর্যন্ত এটিই ছিল সর্বোচ্চ মৃত্যু।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, করোনায় নতুন মৃত ২৩১ জনের মধ্যে পুরুষ ১৩৬ ও নারী ৯৫ জন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ১৬৭ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ৪৬ জন এবং বাড়িতে ১৮ জন মারা যান। এদের মধ্যে বয়সের হিসেবে দশোর্ধ একজন, বিশোর্ধ ছয়জন, ত্রিশোর্ধ্ব ৯ জন, চল্লিশোর্ধ্ব ৩৩ জন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ৪৩ জন, ষাটোর্ধ ৭৪ জন, সত্তোরোর্ধ্ব ৪৪, আশির্ধ্ব ১৯ এবং নব্বই বছরের বেশি বয়সী চারজন রয়েছেন।

করোনায় মৃত ২৩১ জনের মধ্যে- ঢাকা বিভাগে ৭৩ জন, চট্টগ্রাম ৪৩ জন, রাজশাহী ১৬ জন, খুলনা ৫৭ জন, বরিশাল ছয়জন,সিলেট বিভাগে আটজন, রংপুর বিভাগে ১৭ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১১ জনের মৃত্যু হয়।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি-বেসরকারি ৬৩৮টি ল্যাবরেটরিতে ৪৬ হাজার ৪৫১টি নমুনা সংগ্রহ ও ৪৫ হাজার ১২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ৭৩ হাজার ৩৯৯টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২৯ দশমিক ৫৯ শতাংশ। গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের মোট হার ১৫ দশমিক শূন্য ৩০ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯ হাজার ৩৩৫ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে উঠা রোগীর সংখ্যা বেড়ে হলো ৯ লাখ ৪১ হাজার ৩৪৩ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৮৪ দশমিক ২৫ শতাংশ। বাংলাদেশে করোনা প্রথম শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। এর ১০ দিন পর ভাইরাসটিতে একজনের মৃত্যুর তথ্য জানায় স্বাস্থ্য অধিদফতর।


শেয়ার করুন

আরো সংবাদ