খুরুশকুলে পোল্ট্রি খামারের দুর্গন্ধে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ - কক্সবাজার কন্ঠ

সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪ ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২৪-০২-১১ ০৪:১৯:১৩

খুরুশকুলে পোল্ট্রি খামারের দুর্গন্ধে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ

খুরুশকুলে পোল্ট্রি খামারের দুর্গন্ধে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুল ইউনিয়নের মনুপাড়ায় অপরিকল্পিতভাবে গড়ে উঠেছে বেশ কয়েকটি পোলট্রি খামার। যেগুলোর বর্জ্যে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ। তীব্র দুর্গন্ধে আশপাশের বসবাসকারী বাসিন্দাদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এলাকাবাসীরা জানিয়েছে, খুরুশকুল নতুন ব্রিজটি হওয়ার পরে সড়কের আশেপাশের গ্রামগুলোতে আমূল পরিবর্তন এসেছে। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো হওয়াতে স্কুল-কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় মনোযোগের পাশাপাশি এলাকাটি বিনোদনের মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। সড়কের সৌন্দর্য ও প্রাকৃতিক পরিবেশ উপভোগ করতে প্রতিদিন শত শত মানুষ ভিড় জমায়।

কিন্তু, সড়কের পাশেই গড়ে উঠেছে অপরিকল্পিত বেশকিছু পোলট্রি খামার। এতগুলোর কোনটিরই পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতি নেই। মুরগির বর্জ্যে ফোলার নির্দিষ্ট স্থানও নেই। ফেলা হচ্ছে সড়কের পাশে। ফলে পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে। পথচারীদের ওই স্থান দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় নাকে হাত দিয়ে যেতে হচ্ছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, সড়কের গা-ঘেঁষে ৮ থেকে ১০টি মুরগির খামার গড়ে উঠেছে। যেগুলো নিয়ন্ত্রণ করছেন, রফিকুল ইসলাম ও দিদারুল ইসলাম। তারা দু’জনে মিলে এসব খামার পরিচালনা করলেও নিয়মনীতি তোয়াক্কা করছে না। নির্দিষ্ট একটি সময়ে মুরগির বর্জ্যে সড়কের পাশে ফেলা হচ্ছে।

আবার অনেক সময় কারখানার ভেতরে রয়ে যায় এসব বিষ্টা। দুর্গন্ধে আশপাশের মানুষের দুর্ভোগের সীমা থাকে না। মুরগির বিষ্ঠা ট্রাকে করে নেওয়ার সময় গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে আশপাশে। ঝাঁকুনিতে ট্রাক থেকে বিষ্টা সড়কে পড়ে যায়। ফলে দুর্গন্ধের মধ্য দিয়ে চলতে হয় সাধারণ মানুষকে।

আরো সংবাদ