গাজাবাসীকে অনাহারে রেখে হামাসকে পরাজিত করা যায় না - কক্সবাজার কন্ঠ

সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২৪-০৩-১৯ ১৯:২৮:৪৫

গাজাবাসীকে অনাহারে রেখে হামাসকে পরাজিত করা যায় না

গাজাবাসীকে অনাহারে রেখে হামাসকে পরাজিত করা যায় না

নিউজ ডেস্ক :  ইসরাইলের আগ্রাসনে নির্মমভাবে প্রাণ যাচ্ছে গাজার বেসামরিক জনগণের। অনাহারে দিন কাটছে তাদের। এভাবে ‘নিরীহ বেসামরিক মানুষকে অনাহারে রেখে হামাসকে পরাজিত করা যায় না’ বলে মন্তব্য করেছেন বেলজিয়ামের উন্নয়ন সহযোগিতা মন্ত্রী। মঙ্গলবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বেলজিয়ামের উন্নয়ন সহযোগিতা মন্ত্রী ক্যারোলিন গেনেজ বলেছেন, ইসরাইল ‘নিরীহ বেসামরিকদের অনাহারে’ রেখে হামাসকে পরাজিত করতে পারবে না।

সামাজিক মাধ্যম এক্সে তিনি বলেছেন, ‘অনাহার গাজায় এক মিলিয়নেরও বেশি লোককে হুমকির মুখে ফেলেছে’।

তিনি আরো বলেছেন, ক্ষুধা কখনোই যুদ্ধের অস্ত্র হওয়া উচিত নয় এবং নিরপরাধ বেসামরিক মানুষকে ক্ষুধার্ত করে হামাসকে পরাজিত করা উচিত নয়।

ক্যারোলিন গেনেজ বলেছেন, ‘মানবিক সহায়তা বন্ধ করা বন্ধ করুন এবং আরো সীমান্ত ক্রসিং খুলুন।’

এদিকে ওয়ায়েল মিকদাদ নামে খান ইউনিসের এক বাসিন্দা বলেন, আমরা সাহায্যের জন্য অপেক্ষা করতে থাকি। জাহাজে হোক বা বিমানে হোক এটা কোনো সমাধান নয়। আমরা বিমানগুলোকে সাহায্য নামাতে দেখেছি এবং লোকেরা এটি নিয়ে লড়াই করছে। কিছু শিশু আছে যারা সাহায্য নিতে যেয়ে সাগরে ডুবে গেছে।

এদিকে প্রায় ৬ লাখ মানুষ দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে বলে সতর্ক করছে সাহায্য সংস্থাগুলো।

ইমান ওয়াদি নামে আরেক বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনি বলেছেন, ‘এখানে জীবনের অবস্থা খুবই খারাপ। আমরা খেতে পারি না, পান করতে পারি না এবং সাহায্য খুবই কম।’

এদিকে হামাস পরিচালিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরাইলি হামলায় উপত্যকায় ৩২ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন যা প্রতি ৭৩ জন বাসিন্দার মধ্যে একজনকে প্রতিনিধিত্ব করে। এছাড়া আরো ৭২ হাজার ৭৬০ জন আহত হয়েছেন।

ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অন্য বছরের মতো এবার রমজান যাপনের সুযোগ নেই। কারণ, শত শত মসজিদ গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে। নগর-ভবন চুরমার করা হয়েছে। তাই জীবন যাপনের অনুসঙ্গ সংকীর্ণ হয়ে এসেছে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুসারে, চলমান গাজা যুদ্ধে অন্তত ১২ হাজার ৩০০ শিশু মারা গেছে।
সূত্র : আল-জাজিরা

আরো সংবাদ