জয়ের রাজনীতিতে আসা নিয়ে যা বললেন শেখ হাসিনা - কক্সবাজার কন্ঠ

বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২২ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২২-০৯-০৪ ১৩:৫৮:৩৪

জয়ের রাজনীতিতে আসা নিয়ে যা বললেন শেখ হাসিনা

ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের পরামর্শে সরকার বিভিন্ন ডিজিটাল উদ্যোগ গ্রহণ করেছে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জয়ের রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেছেন, এ সিদ্ধান্ত তার একান্ত নিজের এবং দেশের জনগণের ওপর নির্ভর করছে। ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআইকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন। জয়ের সক্রিয় রাজনীতিতে প্রবেশের বিষয়ে তিনি বলেছেন, সে একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ। রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার বিষয়টি তার সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। ওই সাক্ষাৎকারে জয়ের বিভিন্ন উদ্যোগ স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার উদ্যোগ, স্যাটেলাইট, সাবমেরিন কেবল কিংবা কম্পিউটার প্রশিক্ষণের মতো ডিজিটাল ব্যবস্থা তার পরামর্শেই নেওয়া হয়েছে। সে আমাকে সহযোগিতা করলেও কখনও দল কিংবা মন্ত্রণালয়ে কোনো পদ পাওয়ার কথা ভাবেনি। শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দলীয় সম্মেলনে পর্যন্ত জয়ের জন্য জোরালো দাবি উঠেছিল। তখন আমি ওকে বললাম, মাইক্রোফোনের কাছে যাও এবং বলো তুমি কী চাও। আরও পড়ুন: বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কার মতো সংকটে পড়বে না: প্রধানমন্ত্রী জয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে জয় বলে, ‘এই মুহূর্তে দলে কোনো অবস্থান চাই না। বরং যারা এখানে কাজ করছেন, তাদের এ পদ পাওয়া উচিত। আমি কেন একটা পদ দখল করে রাখব? আমি আমার মায়ের সঙ্গে আছি, দেশের জন্য কাজ করছি ও তাকে সহযোগিতা করছি। আমি তা করে যাবো।’
সংবাদটি শেয়ার করুন

নিউজ  ডেস্ক :  ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের পরামর্শে সরকার বিভিন্ন ডিজিটাল উদ্যোগ গ্রহণ করেছে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জয়ের রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেছেন, এ সিদ্ধান্ত তার একান্ত নিজের এবং দেশের জনগণের ওপর নির্ভর করছে। ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআইকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন।

জয়ের সক্রিয় রাজনীতিতে প্রবেশের বিষয়ে তিনি বলেছেন, সে একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ। রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার বিষয়টি তার সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে।

ওই সাক্ষাৎকারে জয়ের বিভিন্ন উদ্যোগ স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার উদ্যোগ, স্যাটেলাইট, সাবমেরিন কেবল কিংবা কম্পিউটার প্রশিক্ষণের মতো ডিজিটাল ব্যবস্থা তার পরামর্শেই নেওয়া হয়েছে। সে আমাকে সহযোগিতা করলেও কখনও দল কিংবা মন্ত্রণালয়ে কোনো পদ পাওয়ার কথা ভাবেনি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দলীয় সম্মেলনে পর্যন্ত জয়ের জন্য জোরালো দাবি উঠেছিল। তখন আমি ওকে বললাম, মাইক্রোফোনের কাছে যাও এবং বলো তুমি কী চাও।

ই মুহূর্তে দলে কোনো অবস্থান চাই না। বরং যারা এখানে কাজ করছেন, তাদের এ পদ পাওয়া উচিত। আমি কেন একটা পদ দখল করে রাখব? আমি আমার মায়ের সঙ্গে আছি, দেশের জন্য কাজ করছি ও তাকে সহযোগিতা করছি। আমি তা করে যাবো।’


সংবাদটি শেয়ার করুন
 
     
  
      

আরো সংবাদ