টেকনাফে অপহৃত ৫ রোহিঙ্গা শিশু মুক্তিপণে ফিরেছে  - কক্সবাজার কন্ঠ

শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শুক্রবার

প্রকাশ :  ২০২৩-০৪-২৯ ১৩:১৪:০১

টেকনাফে অপহৃত ৫ রোহিঙ্গা শিশু মুক্তিপণে ফিরেছে 

টেকনাফে অপহৃত ৫ রোহিঙ্গা শিশু মুক্তিপণে ফিরেছে 
বার্তা পরিবেশক : কক্সবাজারের টেকনাফের দমদমিয়া ন্যাচার পার্ক থেকে অপহৃত ৫ রোহিঙ্গা শিশু ৪ দিন পর ফিরেছে। পাঁচ লাখ টাকার মুক্তিপণ দেওয়ার পর শনিবার (২৯ এপ্রিল) ভোরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন ভূক্তভোগী পরিবারগুলো।
ফেরত আসা শিশুরা হল, টেকনাফের নয়াপাড়ার রেজিস্টার্ড ক্যাম্পের সি ব্লকের হাবিবুর রহমানের ছেলে মো. বেলাল (১৩), মোহাম্মদ ইলিয়াসের ছেলে নূর কামাল (১২), উবায়দুল্লাহর ছেলে নূর আরাফাত (১২), বি ব্লকের মো. রফিকের ছেলে ওসমান (১৪), ডি ব্লকের মাহাত আমিনের ছেলে নুর কামাল (১৫)।
সন্ত্রাসীরা তাদের ছেড়ে দেওয়ার পর ফিরে আসার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা ১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) পুলিশ সুপার মো. জামাল পাশা। তবে তিনি মুক্তিপণের টাকা দেওয়ার বিষয়টি জানেন না বলে জানিয়েছেন।
নয়াপাড়ার রেজিস্টার্ড ক্যাম্পের ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান মো. একরাম জানিয়েছেন, গত ২৪ এপ্রিল সোমবার দুপুরে ন্যাচার পার্ক এলাকা থেকে তাদের ধরে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।
এরপর মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মুক্তিপণ হিসেবে ২০ লাখ টাকা দাবি করেন। গত চারদিন তাদের সঙ্গে দর কষাকষি করার পর জনপ্রতি এক লাখ করে তাদের দেখিয়ে দেওয়া স্থানে রেখে আসলে পরে অপহৃতদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
এপিবিএন পুলিশ সুপার মো.জামাল পাশা বলেন, দমদমিয়া ন্যাচার পার্ক এলাকা থেকে তারা অপহরণের শিকার হয়। তবে মুক্তিপণ দাবির বিষয় নিয়ে ভুক্তভোগী পরিবারগুলো তাঁদের কিছুই জানায়নি বলে জানান ।
এর মধ্যে তাদের উদ্ধারের জন্য পুলিশ ও এপিবিএন পুলিশ দিন-রাত বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। হয় তো অভিযানের কারণে সন্ত্রাসীরা তাদেরকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছে।
টেকনাফ থানার ওসি মো. আবদুল হালিম বলেন, অপহরণের ঘটনার পর থেকে ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের অভিযোগ দেওয়া হয়নি। এরপরও পুলিশ তাদেরদের উদ্ধারের জন্য অভিযান চালিয়ে আসছিল। এ নিয়ে গত ৭ মাসে টেকনাফের পাহাড় কেন্দ্রিক ৫৮ জনকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে।  তবে এ অপহরণের ঘটনাগুলো মাদক সংক্রান্ত বলে জনশ্রুতি রয়েছে।

আরো সংবাদ