ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন নিয়ে যা বললেন আইনমন্ত্রী - কক্সবাজার কন্ঠ

বুধবার, ১৯ মে ২০২১ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২১-০৩-০৫ ২০:১৩:৫৮

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন নিয়ে যা বললেন আইনমন্ত্রী

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন নিয়ে যা বললেন আইনমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক :  আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, কিছু দিন আগে বাংলাদেশ গরীব দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে। জনগণের সহযোগিতায় শেখ হাসিনার পরিশ্রমের ফসল এটি। সকলে মিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে থাকলে বাংলাদেশের ভবিষ্যত পাল্টে যাবে।

শুক্রবার (৫ মার্চ) আখাউড়া রেলওয়ে ষ্টেশন চত্বরে এক পথসভায় দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের কোনো পরিকল্পনা সরকারের আছে কীনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘কিছু দিনের মধ্যে তা দেখতে পাবেন।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘আইন সংশোধনের এখনও কোনো চিন্তা ভাবনা নাই। আমরা এই আইন সংশোধনের কোনো চিন্তাভাবনা করছি না। আমরা যেটা করছি, এটার অপব্যবহার এবং দুর্বব্যবহার বন্ধ করা চেষ্টা করছি।’

এর আগে আরেক প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের যে অপব্যবহার এবং দুর্ব্যবহার, অর্থাৎ মিসইউজ অ্যান্ড অ্যাবিউজ যেটা বলা হচ্ছে, সেই মিসইউজ অ্যান্ড অ্যাবিউজ যাতে এটা না করা যায়, সেরকম কী কী ব্যবস্থা করা যায়, সেটা এই ঘটনার আগেই আমি অফিস অব দি হিউম্যান রাইটস কমিশনারের সাথে আলাপ আলোচনায় ছিলাম। এখন আবারও আলাপ আলোচনায় আমরা আছি।’

তিনি বলেন, ‘আগামী বৃহস্পতিবার সারা পৃথিবীর যে বেস্ট প্র্যাকটিস, এটা আমরা দেখব এবং আমরা একটা তুলনা করব। যদি মিসইউজ অ্যান্ড অ্যাবিউজ এটার বন্ধ করার জন্য ব্যবস্থা নেওয়ার প্রয়োজন হয়, সেই ব্যবস্থা আমরা নেব।’

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মানচিত্র বদলে গেছে। দেশের মানুষের টাকায় শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছেন। কারও কাছ থেকে ঋণ নিতে হয়নি। বাংলাদেশ সারা বিশ্বে উন্নয়নের রুল মডেল হিসেবে পরিচিত হয়েছে। সবই শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণে সম্ভব হয়েছে। ২০৪১ সালে বাংলাদেশকে সারা বিশ্বে একটি উন্নত দেশ হিসেবে পরিচিত করে তুলবো।

তিনি বলেন, করোনা মহামারিতে সারা বিশ্বে ২৫ লাখ লোক মারা গেছে। আর কাউকে হারাতে চাইনা। করোনার বিরুদ্ধে যে যুদ্ধ, সে যুদ্ধে জয়ী হতে চাই। এজন্য তিনি সকলকে দ্রুত করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেয়ার পরামর্শ দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আইন সচিব গোলাম সারোয়ার, জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খান, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবুল কাসেম ভূঁইয়া, কসবা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাশেদুল কাউছার ভূঁইয়া ও আখাউড়া পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল।

আরো সংবাদ