পরিকল্পিত হত্যাকান্ড দাবী ছেলের : নারীর মৃতদেহ উদ্ধার   - কক্সবাজার কন্ঠ

শুক্রবার, ২০ মে ২০২২ ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২২-০১-২৫ ১৫:৫০:৫৮

পরিকল্পিত হত্যাকান্ড দাবী ছেলের : নারীর মৃতদেহ উদ্ধার  

নাফনদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার
শেয়ার করুন

কক্সবাজার : কক্সবাজারের পেকুয়ায় বাম হাত ও দুই পায়ের রগকাটা অবস্থায় মোহছেনা আক্তার (৩৭) নামে এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এছাড়া তার পেটে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মঙ্গলবার  (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে পেকুয়া সদর নুইন্যামুইন্যা ব্রিজ বিল থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত নারী কক্সবাজার পৌরসভার খাজা মঞ্জিল এলাকার ছাবের আহমদের মেয়ে।
পেকুয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, সকালে কৃষকরা ক্ষেতে চাষাবাদ করতে যাওয়ার সময় মৃতদেহটি দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখে মৃতদেহ আশেপাশে কোনো রক্তের চিহ্ন নাই। তবে পরিহিত বোরকায় রক্তের দাগ রয়েছে। লাশের পাশেই একটি ব্যাগ পাওয়া গেছে। সেই ব্যাগে মুঠোফোন, স্মার্টকার্ড ও কিছু টাকা রয়েছে। স্মার্টকার্ডের তথ্য অনুযায়ী নিহতের বাড়ি কক্সবাজার শহরে। সে কিভাবে পেকুয়া আসলো কিংবা কেউ নিয়ে আসলো কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
ওসি আরও বলেন, ঘটনাস্থালে সিআইডি ও পিবিআই ও পুলিশের ক্রাইম ইউনিট এসেছে। তারা মৃতদেহ ও ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করেছে।
তবে নিহতের ছেলে আরিফ জানিয়েছে, টাকা দেওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে মাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে সৎ বাবা রিদুয়ান। আমার বাবা মালেশিয়ায় থাকতো। সেখানে গত বছর মারা যান। আমার বাবার সঙ্গে মালেশিয়ায় পরিচয় হয় চকরিয়া উপজেলা কোনাখালীর রিদুয়ানের। এরপর রিদুয়ান দেশে আসলে আমাদের পরিবারের সাথে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সাত আট মাস আগে রিদুয়ানের সঙ্গে আমার মায়ের বিয়ে হয়।
তবে আমার মা কখনও রিদুয়ানের বাড়িতে থাকেনি। রিদুয়ানই আমাদের সাথে শহরের খাজামঞ্জিল এলাকায় এসে মাঝে মধ্যে থাকতো। গেল সোমবার দুপুরে রিদুয়ান আমার মাকে ফোন করে টাকার জন্য যেতে বলে। পরে দুপুর ২টার দিকে মা টাকার জন্য কোনাখালীর উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর মঙ্গলবার পুলিশের ফোনে জানতে পারি আমার মায়ের মৃতদেহ পেকুয়া সদরের নুইন্যামুইন্যা ব্রিজ সংলগ্ন বিল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে পেকুয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, নিহতের স্বজনদের দেওয়া তথ্য যাচাই বাছাই করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ