প্রায় ৪৮ হাজার কর্মীকে সুরক্ষা প্রশিক্ষণ দিয়েছে ব্র্যাক - কক্সবাজার কন্ঠ

শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২১শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২২-১২-১৩ ১৫:২৩:৩১

প্রায় ৪৮ হাজার কর্মীকে সুরক্ষা প্রশিক্ষণ দিয়েছে ব্র্যাক

প্রায় ৪৮ হাজার কর্মীকে সুরক্ষা প্রশিক্ষণ দিয়েছে ব্র্যাক

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : সকল কর্মী ও কর্মসূচির সাথে সম্পৃক্ত জনগোষ্ঠীর সুরক্ষা ও মর্যাদা রক্ষায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ব্র্যাক। তাই কর্মীদের মধ্যে সচেতনতা ও দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০১৯ সাল থেকে এই পর্যন্ত ৪৮ হাজারের অধিক কর্মীকে ‘সেইফগার্ডিং’ বা ’সুরক্ষা’ বিষয়ক প্রশিক্ষণ দিয়েছে সংস্থাটি।

আজ (১৩ ডিসেম্বর) মঙ্গলবার কক্সবাজারের একটি হোটেলে ’সেইফগার্ডিং বিষয়ক সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এই তথ্য তুলে ধরা হয়। সেইফগার্ডিং বা ’সুরক্ষা’ বিষয়ে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাক এর মানবিক সহায়তা কর্মসূচি (এইচসিএমপি) পপুলার থিয়েটার প্রদর্শনীর মাধ্যমে ব্যাতিক্রমী এই ক্যাম্পেইনের আয়োজন করে।

এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ব্র্যাকের মানবিক সহায়তা কর্মসূচির (এইচসিএমপি) পরিচালক খন্দকার আরিফুল ইসলাম। এই আয়োজনের উদ্দেশ্য তুলে ধরেন- ব্র্যাকের প্রধান কার্যালয়ের সেইফগার্ডিং লিড তাহমিনা ইয়াসমিন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ব্র্যাক এইচসিএমপির অপারেশন্স অ্যান্ড এডমিন হেড শায়ানা হায়াত, ব্র্যাক প্রধান কার্যালয়ের সেইফগার্ডিং ইউনিটের ম্যানেজার তিলন অ্যান্ড্রু, এইচসিএমপির সেইফগাডিং ইউনিটের ম্যানেজার আয়েশা আকতার মনি সহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ব্র্যাক এইচসিএমপির মানব সম্পদ বিভাগের এসিট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার (এজিএম) এস এম জাহিদুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে খন্দকার আরিফুল ইসলাম বলেন, সেইফগাডিং শুধু ব্র্যাক এর বিষয় না। বরং এটি এখন গ্লোবাল ইস্যু। তাই এটিকে এখন আমাদের সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে। এই প্রেক্ষাপটে আমাদের সব কর্মীকে প্রশিক্ষণের পাশাপাশি বাস্তবে অণুশীলন করতে হবে।

তাহমিনা ইয়াসমিন অনুষ্ঠান আয়োজনের উদ্দেশ্য সম্পর্কে বলেন, এই আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য হল- ব্র্যাকের বিভিন্ন মাঠ পর্যায়ের ব্যবস্থাপনা কর্মীদের মধ্যে সুরক্ষা বিষয়ক জ্ঞান, তথ্য শেয়ার করা এবং সেইফগার্ডিং বিষয়ে গণসচেতনতা গড়ে তোলা।

এছাড়াও ’সুরক্ষার’ একটি সার্বিক সংস্কৃতি গড়ে তোলার লক্ষ্যে আয়োজন করা হচ্ছে বিভাগীয় পর্যায়ে এই সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন।

বক্তারা-পপুলার থিয়েটারকে শুধু বিনোদন নয়, বরং লোকশিক্ষার শক্তিশালী মাধ্যম হিসেবে তুলে ধরেন। তারা ’সুরক্ষামূলক সচেতনতা গড়ে তুলতে এই মাধ্যমকে ব্যবহার করে আরও অনুষ্ঠান করার তাগিদ দেন।

এতে উখিয়া ও টেকনাফ থেকে ব্র্যাকের বিভিন্ন কর্মসূচিতে কর্মরত আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক, জেলা ব্যবস্থাপক, শাখা ব্যবস্থাপ্কসহ বিভিন্ন পর্যায়ের শতাধিক কর্মী অংশ নেন। গত বছর থেকে এই পর্যন্ত দেশের আটটি বিভাগে ব্র্যাক এই ধরণের ক্যাম্পেইন আয়োজন করে।

আরো সংবাদ