ব্রিটিশ সিংহাসনে রাজা চার্লস ! - কক্সবাজার কন্ঠ

বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২২ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বৃহস্পতিবার

প্রকাশ :  ২০২২-০৯-০৯ ১৫:১৪:০০

ব্রিটিশ সিংহাসনে রাজা চার্লস !

ব্রিটিশ সিংহাসনে রাজা চার্লস !
সংবাদটি শেয়ার করুন

নিউজ  ডেস্ক :  রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পর ব্রিটেনসহ আরও ১৪টি কমনওয়েলথ দেশের রাজা হচ্ছেন ৭৩ বছর বয়সী চার্লস। তিনি হচ্ছেন রানি এলিজাবেথ ও প্রিন্স ফিলিপের বড় সন্তান।

১০ সেপ্টেম্বর তাঁকে আনুষ্ঠানিক ভাবে রাজা হিসাবে ঘোষণা করা হবে লন্ডনের সেন্ট জেমস প্রাসাদে। তবে এদিনই তাঁর অভিষেক অনুষ্ঠান হচ্ছে, প্রথা অনুযায়ী এটি কিছুদিন পরে হয়।

এর আগে ৭০ বছর রাজত্ব করার পর রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ বৃহস্পতিবার বিকেলে স্কটল্যান্ডের এডিনবরার ব্যালমোরাল দুর্গে মারা যান। তার বয়স হয়েছিলো ৯৬ বছর।

রানি এলিজাবেথ ১৯৫২ সালে সিংহাসনে আসীন হন এবং তার জীবদ্দশায় তিনি ছিলেন বিরাট সব সামাজিক পরিবর্তনের সাক্ষী। ছিলেন রাজতন্ত্র থেকে রাজপরিবারে রূপান্তরের কারিগর।

মায়ের মৃত্যুর সময় পাশেই ছিলেন রাজা চার্লস। শুক্রবার স্কটল্যান্ডে ব্যালমোরাল প্রাসাদ থেকে ফিরে এসেই রাজা চার্লস বাকিংহাম প্রাসাদের শোকরত নাগরিকদের সঙ্গে দেখা করেন।

রানির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের এক বিশেষ অধিবেশন শুরু হয়েছে। রাজা চার্লস দেখা করেছেন ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাসের সঙ্গে।

পূর্ব নির্ধারিত না থাকলেও, প্রধানমন্ত্রী ট্রাসের সঙ্গে দেখা করার পর রাজা চার্লস জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেয়ার কথা রয়েছে।

১৯৪৮ সালের ১৪ নভেম্বর বাকিংহাম প্রাসাদে চার্লস জন্ম নেন। তার জন্মের পূর্বেই ঠিক হয়ে যায় এলিজাবেথ-ফিলিপের সন্তান জন্মগ্রহণ করলেই রাজকুমার হিসেবে বিবেচিত হবে।

১৯৫৫ সালে বাকিংহাম প্রাসাদ থেকে বলা হয় চার্লস ঘরে থেকে পড়াশোনা করে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা লাখ করবেন। চার্লসই রাজ পরিবারের প্রথম সদস্য এমন শিক্ষার সুযোগ লাভ করেন।

প্রাসাদে শিক্ষা গ্রহণের পর তিনি লন্ডন, হ্যাম্পশায়ার এবং স্কটল্যান্ডে পড়াশোনা করেন। এরপর ১৯৬৭ সালে কেমব্রিজের ট্রিনিটি কলেজে ভর্তি হন। ১৯৭১ সালে স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেন।

এছাড়াও তিনি অ্যাবেরিস্টিথ ইউনিভার্সিটি কলেজ অব ওয়েলসে অধ্যয়ন করেন। এরপর রয়্যাল এয়ারফোর্স কলেজ ও ডার্টমাউথের রয়্যাল নেভাল কলেজে ভর্তি হন।

১৯৭১-৭৬ সময়ে রয়্যাল নেভিতে ছিলেন তিনি। পরে আধুনিক স্থাপত্যবিদ্যার সমালোচকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন চার্লস।

৭৩ বছর বয়সী চার্লস ১৯৫২ সালে ইংল্যান্ডের যুবরাজ হন। তাঁর উপাধি ‘প্রিন্স অব ওয়েলস’ এখন যাবে তাঁর বড় ছেলে উইলিয়ামের মাথায়।

প্রিন্সেস ডায়নাকে ১৯৮১ সালে বিয়ে করেন চার্লস। ১৯৯৬ সালে তাদের মধ্যে বিবাহ-বিচ্ছেদ ঘটে। এ ঘরে প্রিন্স উইলিয়াম ও প্রিন্স হ্যারি নামে দুই পুত্র রয়েছে।

পরে ২০০৫ সাল থেকে ক্যামিলা, ডাচেস অব কর্নওয়ালের সাথে সংসারধর্ম পালন করছেন চার্লস। ব্যক্তিজীবনে রাজা চার্লস অনেক নারীর সঙ্গে প্রণয় সম্পর্কে জড়িয়েছেন।


সংবাদটি শেয়ার করুন
 
     
  
      

আরো সংবাদ