রামুতে ১৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে হাই-টেক পার্ক - কক্সবাজার কন্ঠ

বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২২ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বৃহস্পতিবার

প্রকাশ :  ২০২২-০৭-১৬ ০৮:০১:৫৬

রামুতে ১৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে হাই-টেক পার্ক

রামুতে ১৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে হাই-টেক পার্ক
সংবাদটি শেয়ার করুন

নিজস্ব  প্রতিবেদক :  কক্সবাজার আইটি/হাই-টেক পার্ক এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। রামু উপজেলার মিঠাছড়িতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক শনিবার (১৬জুলাই) সকাল ১০টায় এ ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

ভারত সরকারের অর্থায়নে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের অধীন জেলা পর্যায়ে আইটি/হাইটেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের আওতায় কক্সবাজারে এ হাই-টেক পার্কটি ৮ একর জায়গার উপর ১৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে। আগামী দুই বছরের মধ্যে পার্কের নির্মাণ কাজ শেষ হবে। পার্কটি চালু হলে প্রতিবছর এক হাজার তরুণ প্রশিক্ষণ গ্রহণ ও প্রত্যক্ষ তিন হাজার তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে প্রতিমন্ত্রী কক্সবাজার হাই-টেক পার্ক, এ এলাকার তরুণ প্রজন্মের কর্মসংস্থানের ঠিকানা উল্লেখ করে বলেন, এটি চালু হলে এলাকার তরুণদের চাকরির জন্য ঢাকা কিংবা বিদেশগামী হতে হবে না। কক্সবাজারকে আধুনিক ও স্মার্ট পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার বদ্ধপরিকর।

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের পর এখন আমরা বাংলাদেশকে উন্নত দেশের কাতারে নিয়ে যেতে চাই। আগামী ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ বির্নিমাণ করতে চাই, যেটা হবে সোনার বাংলার প্রতিরূপ। হাই-টেক পার্ক চালু হলে তরুণ প্রজন্মের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে। তিনি আরও বলেন, তের বছর আগে ডিজিটাল অর্থনীতির আকার ছিল মাত্র ২৬ মিলিয়ন ডলার। আর বর্তমানে তা ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার।

২০২৫ সালে আইসিটি রপ্তানী ৫ বিলিয়ন ডলার এবং প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির মাধ্যমে আইসিটি খাতে কর্মসংস্থান ৩০ লাখে উন্নীত করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে সরকার। এর ফলে বাংলাদেশ শ্রমনির্ভর অর্থনীতি থেকে জ্ঞাননির্ভর ও উন্নত অর্থনীতির স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, জেলা প্রশাসক মামুনুর রশীদ, রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা , বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (গ্রেড-১) ডা. বিকর্ণ কুমার ঘোষ, প্রকল্প পরিচালক একেএএম ফজলুল হকসহ কর্মকর্তাগণ এবং স্থানীয় প্রশাসনের প্রতিনিধিরা।


সংবাদটি শেয়ার করুন
 
     
  
      

আরো সংবাদ