লাশের মিছিলে ভারি হচ্ছে ফিলিস্তিন - কক্সবাজার কন্ঠ

বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বৃহস্পতিবার

বিষয় :

প্রকাশ :  ২০২১-০৫-১৩ ১০:১০:৫৭

লাশের মিছিলে ভারি হচ্ছে ফিলিস্তিন

লাশের মিছিলে ভারি হচ্ছে ফিলিস্তিন
Spread the love

নিউজ ডেস্ক :  অগ্নিগর্ভ গোটা ফিলিস্তিন। আল আকসায় সহিংসতার জেরে গাজায় দুদিনে ইসরায়েলি বিমান হামলায় ১৪ শিশুসহ প্রাণ গেছে অন্তত ৫৩ ফিলিস্তিনির। আহত ৩শরও বেশি। এদিকে হামাসের ছোড়া রকেটে নিহত হয়েছে ৫ ইসরায়েলি সেনাসহ অন্তত ৬ জন। ইসরায়েলের লড, আসকোলানসহ বেশ কয়েকটি শহরে দুই শতাধিক রকেট হামলা চালায় হামাস।
গাজার বিভিন্ন বসতিতে দিনভর মুর্হুমুর্হু বোমা ফেলে ইসরায়েলি বিমান। মঙ্গলবার (১২ মে) রাতের হামলায় মাটির সঙ্গে মিশে যায় ১৩তলা ভবনটি। সময়ের সঙ্গে বাড়তে থাকে ক্ষতচিহ্ন। বোমায় গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে তাল আল হাওয়ার পুলিশ সদর দপ্তর এবং নিরাপত্তা বাহিনীর ভবনও। আহতদের আত্মচিৎকারে ক্রমেই ভারি হয়ে উঠছে হাসপাতালগুলো। ঈদের আগ মুহুর্তে অসহায় গৃহহীন ফিলিস্তিনিরা আশ্রয় নিয়েছেন জাতিসংঘের আশ্রয় কেন্দ্রে।

হামাসের ছোড়া রকেটে প্রাণ গেছে সামরিক যানে থাকা ৫ ইসরায়েলি সেনার। এরপরই গাজার আশপাশ থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে সাযোয়া যান।

ইসরায়েলের আসকোলান শহরের তেল শোধনাগার, বিদ্যুৎ কেন্দ্র বিধ্বস্ত হয়েছে। আশোদ শহরে ৫০ টি আর ১৫ টি রকেট ছোড়া হয় ডিমোনা শহরে। রকেট হামলার পর জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে ইসরায়েলের লড শহরে।

হামাস নেতা ইসমাইল হানিয়া বলেন, ইসরায়েল যদি না থামে তবে আরও চড়ামূল্য দিতে হবে তাদের। জেরুজালেম থেকে ইসরায়েলি বাহিনী না হটা পর্যন্ত এ লড়াই চলবে।

এ অবস্থায় ফের দ্বি-রাষ্ট্র সমাধানের আহ্বান জানিয়েছে চীন। আর দায় সারা উদ্বেগেই সীমাবদ্ধ যুক্তরাষ্ট্র ও জাতিসংঘ। আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী বেসামরিক মানুষদের জীবনমান রক্ষায় দুপক্ষকে সংযত আচরণের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ।

জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিক বলেন, দুই পক্ষের রকেট আর বিমান হামলায় ক্রমাগত প্রাণহানি বেড়েই চলছে। ইসরায়েলি বাহিনীকে সর্বাধিক সংযত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব।

জেরুজালেমের শেখ জাররা থেকে ফিলিস্তিনি বসতি উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে সপ্তাহখানেক ধরেই উত্তপ্ত জেরুজালেম। আল আকসা প্রাঙ্গনে ইসরায়েলি হামলায় আহত হয়েছেন সাতশোরও বেশি ফিলিস্তিনি। সূত্র- চ্যানেল ২৪

আরো সংবাদ