কক্সবাজার সৈকতে আরও একটি মৃত তিমি মাছ - কক্সবাজার কন্ঠ

বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২১-০৪-১০ ০৫:৪০:৫৪

কক্সবাজার সৈকতে আরও একটি মৃত তিমি মাছ

সৈকতে আরও একটি বিরল প্রজাতির মৃত তিমি মাছ!
Spread the love

বিশেষ প্রতিবেদক :  কক্সবাজারের সৈকতে হিমছড়িতে ভেসে এসেছে আরও একটি বিরল প্রজাতির মৃত তিমি মাছ। স্থানীয় জেলেরা শনিবার (১০এপ্রিল) সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সাগরের পানিতে ভাসমান অবস্থায় এটি দেখে বন বিভাগে খবর দেয়। এ নিয়ে সাগর থেকে ২টি বিরল প্রজাতির মৃত তিমি মাছ ভেসে আসলো।

কক্সবাজার দক্ষিণ বিভাগের বন কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির জানিয়েছেন, ধারণা করা হচ্ছে রাতে তিমিটি জোয়ারের সঙ্গে ভেসে এসে ভাটার কারণে বালিয়াড়িতে আটকা পড়েছে। জোয়ারের কারণে মৃত তিমিটি উদ্ধার কাজ শুরু করা যাচ্ছে না বলেও তিনি জানান। তিমিটির দৈর্ঘ্য ৪২ ফুট ও প্রস্থ ১৪ ফুট।

এর আগে বঙ্গোপসাগরের দরিয়ানগর এলাকার সমুদ্র সৈকতে গভীর সাগর থেকে ভেসে এসেছে একটি মৃত তিমি। গতকাল শুক্রবার (৯ এপ্রিল) বেলা দেড়টার দিকে তিমি মাছটি ভেসে আসে বলে স্থানীয়রা জানান।

পরে মাছটি দেখতে স্থানীয়রা সৈকতে ভিড় জমায় জনতা। এসময় তারা তাদের মোবাইল ফোনে মৃত মাছটির ছবি ও ভিডিও ধারণ করেন।

কক্সবাজার সমুদ্র সম্পদ রক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক মফিজুর রহমান মফিজ জানান, তিমিটি হয় আত্মহত্যা করে থাকতে পারে নতুবা আঘাতের কারণে মারা যেতে পারে। বয়সকাল পার হলে সাধারণত তিমিরা আত্মহত্যা করে থাকে। তবে বঙ্গোপসাগরে চলাচলকারী জাহাজের আঘাতেও মাছটি মারা যেতে পারে।

কক্সবাজার পরিবেশ সংরক্ষণ পরিষদের নেতারা জানিয়েছেন, ভেসে আসা বিশাল আকারের এই তিনি মাছ ২টি গলিত প্রায়। ১৯৯১ উখিয়ার ইনানী সৈকতে ১৯৯৬ ও ২০০৮ সালে হিমছড়ি সৈকতে এভাবে ভেসে এসেছিল বিশালাকার তিমি। দীর্ঘদিন পর আবার বিশাল মৃত তিমি সৈকতে ভেসে এসেছে।

কক্সবাজার জেলা মৎস্য কর্মকর্তা খালেকুজ্জামান জানিয়েছেন, খবর পেয়ে মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তা ও কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের একটি টিম ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন। ৯ এপ্রিলের মৃত তিমিটির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এরপর কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সমন্বয়ে মৃত তিমিটি মাটিচাপা দেয়া হবে। তিনি জানান, ধারণা করা হচ্ছে সপ্তাহ দুয়েক আগে তিমি মাছ ২টির মৃত্যু হয়েছে। তবে কি কারণে মারা যাচ্ছে সেটি জানা যাবে এদের ময়না তদন্তের পর।

তিনি আরও জানান, এ প্রজাতির তিমি আমাদের বঙ্গোপসাগরে রয়েছে। বিশেষ করে সুন্দরবনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে এসব তিমি চোখে পড়ে। হয়তো তিমি মারা যাওয়ার পর ভাসতে ভাসতে কক্সবাজার সৈকতের উপকূলে ভিড়েছে।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিন আল পারভেজ জানিয়েছেন, জোয়ারে ভেসে আসা মৃত তিমি থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। তাই ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বলা হয়েছে।

এদিকে বিশাল আকার মৃত তিমি ভেসে আসার খবরে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসন, স্থানীয় বন বিভাগ ও ও জেলা মৎস্য অধিদপ্তরসহ বিভিন্ন পরিবেশবাদী সংগঠনের একাধিক টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে কি কারণে কিভাবে মাছগুলো মারা যাচ্ছে সে বিষয়ে কেউ মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

আরো সংবাদ