স্ত্রীকে হাসপাতালে রেখে স্বামী উধাও, মামলায় শ্বাশুড়ি গ্রেফতার - কক্সবাজার কন্ঠ

বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর ২০২২ ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২১-০৭-১৯ ১১:৪৫:২১

স্ত্রীকে হাসপাতালে রেখে স্বামী উধাও, মামলায় শ্বাশুড়ি গ্রেফতার

স্ত্রীকে হাসপাতালে রেখে স্বামী উধাও, মামলায় শ্বাশুড়ি গ্রেফতার
শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক :  চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের মাইজবিলা পুর্বপাড়া এলাকায় টয়লেট থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে স্বজনেরা। ঘটনার পর তাৎক্ষণিক স্ত্রীর মৃতদেহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে স্বামী জিয়াউর রহমান পালিয়ে যায়। ঘটনার দিন নিহতের শ্বাশুড়ি ওই এলাকার মৃত এনায়েত উল্লাহর স্ত্রী রাজিয়া বেগমকে (৫৫) আটক করেছে লোহাগাড়া থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহতের মা রিজিয়া বেগম বাদী হয়ে শ্বাশুড়ি রাজিয়া বেগম ও তার ছেলে জিয়াউর রহমাসের বিরুদ্ধে একখানা হত্যা প্ররোচনা মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ৫১।

জানাগেছে, রোববার (১৮ জুলাই) রাত ৮টার দিকে জিয়াউর রহমানের স্ত্রী ফরজানা আকতার কলিকে (২২) টয়লেটে দেখতে পান তার শ্বাশুড়ি। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এসে তার স্বামী জিয়াউর রহমান। পরে সুযোগ বুঝে স্ত্রীর দেহ হাসপাতালে রেখেই পালিয়ে যায় জিয়াউর রহমান।

নিহতের মা রাজিয়া বেগম জানান, স্বামী ও শ্বাশুড়ি মিলে আমার মেয়ে কলিকে মেরে ফেলেছে । আমি মেয়ে হত্যার বিচার চাই।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানাগেছে, নিহত গৃহবধূর গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তারা প্রাথমিক ধারণা করছেন এটা আতœহত্যা নয়, পরিকল্পিত হত্যা।

লোহাগাড়া থানার ওসি জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান, গৃহবধূ কলি নিহতের ঘটনায় তার মা রাজিয়া রেগম বাদী হয়ে শ্বাশুড়ি ও স্বামীকে আসামী করে একটি হত্যা প্ররোচনা মামলা দায়ের করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের শ্বাশুড়ি রিজিয়া বেগমকে আটক করা হয়। নিহতের স্বামী জিয়াউর রহমান পলাতক রয়েছে। তাকে আটক করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান ওসি।


শেয়ার করুন

আরো সংবাদ