২০০ আসনও পাবে না বিজেপি : মমতা - কক্সবাজার কন্ঠ

রোববার, ১৯ মে ২০২৪ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রকাশ :  ২০২৪-০৪-২০ ০৩:১০:৪৩

২০০ আসনও পাবে না বিজেপি : মমতা

২০০ আসনও পাবে না বিজেপি : মমতা

নিউজ ডেস্ক :  ভারতের চলমান লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি ২০০ আসনও পাবে না। যে সমীক্ষাগুলোতে বিজেপিকে এগিয়ে রাখা হয়েছে, সেগুলো ভুয়া। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে মুর্শিদাবাদে এক পথসভায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ মন্তব্য করেছেন।

মমতা বলেন, ‘২০০টি আসনও পাবে না বিজেপি। সব সমীক্ষা ভুয়ো। লক্ষ লক্ষ টাকা ঢেলে সমীক্ষা করেছে। ওতে কান দেবেন না। মানুষের চোখ বলছে, বিজেপি জিতবে না।’

এবার সাত দফায় ভারতজুড়ে ৫৪৩টি আসনে ভোট হচ্ছে। বিজেপির নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ) ৪০০ আসন পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও  জোটটির অন্য নেতারা। নিজেদের অর্থায়নে পরিচালিত বিভিন্ন জরিপের ভিত্তিতে তারা এমন আশা প্রকাশ করেছেন। তবে এতটি আসন না পেলেও এবার জিতে মোদি টানা তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নির্বাচন কমিশনকে তোপ

শুক্রবারের সভায় নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন মমতা। তিনি বলেন, ‘যার বিয়ে সে-ই পুরোহিত— এটা প্রথম দেখছি। কী করে রাজ্যের পুলিশকে পুরো বাদ দিয়ে আপনারা শুধু কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট করাচ্ছেন? যাতে লোকে ভোট দিতে না পারে?’

বাম ও কংগ্রেসকে আক্রমণ

বিরোধীদের জোট ‘ইন্ডিয়া’ প্রসঙ্গে মমতা বলেন, ‘কেউ কেউ বলছে, আমরা ‘ইন্ডিয়া’, আমাদের ভোট দিন। ‘ইন্ডিয়া’ এখানে নেই, ওটা দিল্লির। আমিই তৈরি করেছি। কংগ্রেস, সিপিএম এখানে ‘ইন্ডিয়া’ নয়। ওরা বিজেপি করে। ওদের একটা ভোট দেওয়া মানে বিজেপিকে দুটো ভোট দেওয়া। একটা ভোটও দেবেন না।’

ভারতের ১৮তম লোকসভা বা সাধারণ নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটগ্রহণ শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) সকাল ৭টায় শুরু হয়েছে। চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। দুপুর ১টা পর্যন্ত সারা দেশে প্রায় ৩৯ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। এবার জিতলে টানা তিনবার প্রধানমন্ত্রী হবেন বিজেপির নরেন্দ্র মোদি।

এবার লোকসভার ৫৪৩ আসনে নির্বাচন হচ্ছে সাত দফায়। শুক্রবার প্রথম দফায় ২১ রাজ্যের ১০২ আসনে ভোটগ্রহণ হচ্ছে।

বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশটিতে এবার ভোট হবে ৪৪ দিনে। ৫৫ লাখ ইলেকট্রনিং ভোটিং মেশিন ব্যবহার করে এবার ভোট দেবে ৯৬ কোটি ৯০ লাখ নিবন্ধিত ভোটার। একযোগে ৪ জুন ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

নির্বাচনের প্রধান দুটি প্রতিদ্বন্দ্বী দল হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ) এবং বিরোধী কংগ্রেসের নেতৃত্বে ২৬টি দল নিয়ে গঠিত ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টাল ইনক্লুসিভ অ্যালায়েন্স (আইএনডিআইএ বা ইন্ডিয়া)।

৫৪৩ আসনের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে রয়েছে ৪২টি। এর মধ্যে শুক্রবার নির্বাচন হচ্ছে তিনটি আসনে। কোচবিহার, জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার।

গোটা দেশের ২৮ রাজ্য ও আট কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মধ্যে আজ নির্বাচন হচ্ছে ১৭ রাজ্য ও চার অঞ্চলের ১০২ আসনে। একই সঙ্গে কাল আরও নির্বাচন হচ্ছে অরুণাচল প্রদেশের বিধানসভার ৬০ ও সিকিমের ৩২ আসনে।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস, এনডিটিভি, আনন্দবাজার পত্রিকা

আরো সংবাদ