মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে পুলিশের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে নেতাকর্মীরা 

নিউজ ডেস্ক: সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের প্রতিক্রিয়ায় ধানমন্ডির ৩/এ-তে আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ব্রিফিংয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনারা দেখেছেন, ‘আমাদের এখানে তাদের থেকে বেশি জমায়েত হয়েছিল। এমনও দেখেছেন মাশরাফি বিন মর্তুজাকে পেছন দিক থেকে দেড় কিলোমিটার হেঁটে এ অফিসে আসতে হয়েছিল। সে তুলনায় এমন কি ভিড় তাদের হয়েছিল? পুলিশ আমাদের এখানেও ছিল নিরাপত্তার জন্য।’

তিনি আরও বলেন, ‘সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে মির্জা আব্বাসের নেতৃতে আজ তারা পুলিশের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে  এবং পুলিশের দুটি গাড়ি পুড়িয়ে দেয়। একটি গাড়ি প্রায় পুড়িয়ে ফেলে এবং ১৩ জন পুলিশের সদস্য মারাত্মকভাবে আহত হয়ে আজ হাসপাতালে।’

এ উসকানি কারা দিলো-প্রশ্ন রেখে এ আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘তাহলে কি নির্বাচন পেছানোর জন্য তারা পরিকল্পিতভাবে নয়াপল্টনে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে নিজেদের বীরত্ব জাহির করলো? যে ষড়যন্ত্র নির্বাচন বানচালের সেই ষড়যন্ত্রই কী যেটা আমরা আশা করেছিলাম, সেটাই কী তারা শুরু করে দিলো?’

তারা নির্বাচন বানচাল করতে চায়-এ কথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা ২০০১ সালে যা করেছি, ২০১৪ সালে যা করেছি আবারও আমরা সেটাই করবো। তাদের উদ্দেশ্য মনে হচ্ছে আজকের ঘটনায় নির্বাচনে যাওয়া নয়, তারা নির্বাচন বানচাল করতে চায়। তারা জনপ্রিয়, জননন্দিত শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে হটাতে চায়। এটাই হচ্ছে তাদের উদ্দেশ্য।’

ঐক্যফ্রন্টের নামে অনেকেই তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘তাদের স্বরূপ এবার উন্মোচিত হলো পল্টনে পুলিশের উপর সাঁড়াশি হামলার মধ্য দিয়ে। প্রকাশ্য দিবালোকে তারা এভাবে হামলা করে পুলিশের গাড়ি পুড়িয়েছে। পুলিশ সেখানে নীরব দর্শক।

এ সময় মির্জা ফখরুলের উদ্দেশে কাদের বলেন, ‘মিথ্যাচারিত আপনাদের রাজনীতি। আপনি আবারও মিথ্যাচার করলেন। পুলিশ কেন সরিয়ে দেবে। সেখানে ভিডিও ফুটেজ আছে। সম্পূর্ণ নীরব দর্শক ছিল পুলিশ। সেখানে সাংবাদিকরা ছিল। আপনি আবারও সেই মিথ্যাচার বিএনপির পুরোনো অভ্যাস। সেই ভাঙা রেকর্ড আজকেও আপনি বাজাতে গেলেন? এত মিথ্যার বেসাতি কেন করলেন?’ এ সময়ে গণভবনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের অনানুষ্ঠানিক সাক্ষাৎকারের পর দলের পার্লামেন্টারি বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই ঘটনার কথা শুনেছেন বলেও জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*