পচা-বাসি বিরিয়ানি বিক্রিতে ব্যস্ত শহরের এ্যারাবিয়ান রেস্তোরাঁ


নিজস্ব প্রতিবেদক: ভাল মানের হিসেবে স্টিকার-সাইনবোর্ড লাগানো এ্যারাবিয়ান বারবিকিউ, রেস্তোরাঁ এন্ড বিরানী হাউস নামে এক প্রতিষ্ঠানে মিলেছে পচা-বাসি খাবার। পর্যটন নগরী কক্সবাজার শহরের কক্সসিটি সেন্টার সংলগ্ন এলাকায় প্রতিষ্ঠানটি যাত্রা শুরু করেছে। যদিও দেখতে ফিটফাট মনে হলেও রেস্তোরাঁটির বিরুদ্ধে রয়েছে নানা অভিযোগ। সম্প্রতি ওই রেস্তোরাঁর বিরুদ্ধে তরতাজার আড়ালে পচা-বাসি বিরিয়ানি বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। খাবার তৈরিতে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার, কর্মচারীদের অসন্তোষজনক আচরণসহ নানা অভিযোগ রয়েছে ভোক্তাদের।
জানাগেছে ২ এপ্রিল ৮০ টাকা দরে ৩২০ টাকায় চারটি চিকেন বিরিয়ানির প্যাকেট কিনেছিলেন সরকারি এক কর্মকর্তার স্ত্রী। তিনি বাসায় গিয়ে দেখেন চার প্যাকেট থেকেই গন্ধ বের হচ্ছে। শখ করে নেয়া বিরিয়ানি খেতে পারেননি। দুঃখের সাথে ডাস্টবিনে ফেলে দিতে হয়েছে। এ অভিযোগ হোটেল কর্তৃপক্ষকে জানালেও তারা পাত্তা দেয়নি। একই অভিযোগ ইসলামিক ফাউন্ডেশন কক্সবাজার অফিসের এক সিনিয়র কর্মকর্তার। তিনি পচা-বাসি খাবার বিক্রিকারী এ রেস্তোরাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন। এ্যারাবিয়ান বারবিকিউ, রেস্তোরাঁ এন্ড বিরানী হাউস-এর জায়গায় আগে ছিল ‘স্বাদ’ নামের আরেকটি খাবার প্রতিষ্ঠান। তাদের বিরুদ্ধেও ছিল একই ধরণের অভিযোগ। স্বাদ-এর গোডাউনে বেশ কয়েকবার অভিযান চালিয়েছিল জেলা প্রশাসন। এ প্রসঙ্গে এ্যারাবিয়ান বারবিকিউ, রেস্তোরাঁ এন্ড বিরানী হাউসের ব্যবস্থাপক ইমাম হোসাইনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ওইদিন তিনি ছিলেন না। বিষয়টি জানার পরে তিনি সবাইকে এব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছেন বলে জানান।
কক্সবাজারের ভোক্তার সহকারী পরিচালক বলেন, এ্যারাবিয়ান বারবিকিউ, রেস্তোরাঁ এন্ড বিরানী হাউসের খাবারের মান নিয়ে অবগত আছি, সামনে থেকে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*