পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যানের ১৪ বছর সাজা


কক্সবাজার : অস্ত্র মামলায় পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমকে ১৪ বছর সাজা প্রদান করেছে আদালত। ৯ মে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ খোন্দকার হাসান মো. ফিরুজ ১৯৭৮ সালের অস্ত্র আইনে ১৯ (এ) ধারায় উক্ত মামলায় (১৫৮/২০১৭)সাজা প্রদান করে। একই মামলার অপর ৩ আসামীকে বেকসুর খালাস প্রদান করে। জানাগেছে, সদ্য অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নিজদল আওয়ামী লীগের প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন জাহাঙ্গীর আলম। পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম সম্প্রতি শপথ নিয়ে দায়িত্বভারও গ্রহণ করেছিলেন। কিন্তু দায়িত্বগ্রহণ করে গুছিয়ে উঠার আগেই অস্ত্র মামলায় তাকে যেতে হলো কারাগারে। ২০০৭ সালের ১৩ আগষ্ট নিজ বাড়ি থেকে দশ রাউন্ড কার্তুজ, তিনটি আগ্নেয়াস্ত্র এবং ১৭ লাখ টাকাসহ তৎকালীন জেলা পরিষদ সদস্য জাহাঙ্গীর আলমকে আটক করেছিল র‌্যাব। এসময় তার আরো চারভাইকেও আটক করেছিল। র‌্যাব-৭ এর তৎকালীন কক্সবাজারের কোম্পানি কমান্ডার মেজর রুহুল আমিন ওই অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। ওই ঘটনায় র‌্যাব বাদি হয়ে অস্ত্র মামলা দায়ের করেছিলেন। ওই মামলায় ১৫ দিন জেলে কেটে কারামুক্ত হয়েছিলেন জাহাঙ্গীর আলম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*