মেরিন ড্রাইভ সংস্কারের কারণে সবাই ভোগান্তিতে


নিজস্ব প্রতিবেদক: কক্সবাজারে এসে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন হাজার হাজার পর্যটকসহ স্থানীয়রা। সংস্কারের কারণে মেরিন ড্রাইভে সংযোগ সড়ক বন্ধ থাকায় পর্যটন স্পট দরিয়ানগর, হিমছড়ি, ইনানী ও মেরিন ড্রাইভ যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না।পর্যটন ব্যবসায়ীদের দাবি, সড়ক সংস্কারে ধীরগতির কারণে প্রতিনিয়ত লোকসান গুণতে হচ্ছে তাদের। পৌর মেয়র সংস্কার কাজ এক মাসের মধ্যে শেষ করার আশ্বাস দিলেও, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান বলছে আরো ৩ মাস লাগবে। ছুটিতে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতে আসেন হাজার হাজার পর্যটক। তারা কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত ছাড়াও ঘুরে বেড়ান দীর্ঘ ৮০ কিলোমিটার মেরিন ড্রাইভ, পাথুরে সৈকত ইনানী, হিমছড়ির ঝর্ণা ও পাহাড় ঘেরা দরিয়ানগর। কিন্তু এবার ঈদের ছুটিতে ভ্রমণে আসা পর্যটকরা যেতে পারেনি এসব পর্যটন স্পটে। কারণ কলাতলী থেকে মেরিন ড্রাইভ সংযোগ সড়কটি সংস্কারের জন্য বন্ধ রয়েছে। আবার বিকল্প পথ হিসেবে সৈকতের বালিয়াড়ি দিয়ে যেতে গেলে ঘটছে দুর্ঘটনা ও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়। ফলে বেড়াতে এসে চরম ভোগান্তির শিকার ভ্রমণ পিপাসুরা। একজন পর্যটক বলেন, মেরিন ড্রাইভ, হিমছড়ি বেড়াতে যেতে চাইছিলাম কিন্তু রাস্তা এতই খারাপ যে যেতে পারছি না। পহেলা ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এ সড়কের সংস্কার কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল এপ্রিল মাসে। কিন্তু কাজের ধীরগতির কারণে এখনো শেষ হয়নি। ব্যবসায়ীদের দাবি, গত ৪ মাস ধরে পর্যটন ব্যবসায় মন্দা চলছে। একজন ব্যবসায়ী বলেন, আমরা আমাদের গাড়ি দিয়ে হিমছড়ি ও ইনানী ঘুড়িয়ে আনি কিন্তু রাস্তাটার কারণে সেটা বন্ধ আছে। পৌর মেয়র আগামী এক মাসের মধ্যে সংস্কার কাজ শেষ হবে বলে দাবি করলেও ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান বলছে, আরও ৩ মাস সময় লাগবে। মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, বাকি কাজটা এক মাসের মধ্যেই শেষ করা হবে। হাসান বিল্ডার্স ঠিকাদার কিশোর বড়ুয়া বলেন, ড্রেন করতে গিয়ে আমাদের সময় বেশি লাগছে। মানুষ জায়গাও ছাড়ছে না। হোটেল মালিক সমিতির দেয়া তথ্য অনুযায়ী, কলাতলী থেকে বেইলি হ্যাচারি পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার সংযোগ সড়ক বন্ধ থাকায় এবারের মৌসুমে পর্যটন স্পট দরিয়ানগর, হিমছড়ি, ইনানী ও মেরিন ড্রাইভে ভ্রমণে যেতে পারছেন না প্রায় অর্ধ-লক্ষাধিক পর্যটক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*